সাভার (ঢাকা ) প্রতিনিধি

ঢাকার অতি নিকটে সাভারের তুরাগ নদীর পাশের এলাকায় সড়কে রহস্যজনক ভাবে নুরে আলম (৩২) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে তুরাগ থানা পুলিশ । এঘটনায় নিহতের বাড়িতে শোকের ছায়ানেমে আসছে ।

শুক্রবার (০৭ জানুয়ারি) বিকাল ৪ টার দিকে আশুলিয়া থানাধীন ধামসোনা ইউনিয়নের মধ্যগাজিরচট মাটির মসজিদ এলাকায় তার মরদেহ আনা হয়।

এরআগে, বৃহস্পতিবার (০৬ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে টঙ্গী-আশুলিয়া-ইপিজেড সড়কের তুরাগ থানার সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের সামনে থেকে তার ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে তুরাগ থানা পুলিশ ।

নিহত নুরে আলম আশুলিয়া থানার মধ্য গাজিরচট মাটির মসজিদ এলাকার মৃত হাজী হুমায়ুনের ছেলে।

নুরে আলমের ছোটো ভাই বলেন, গতরাত ১ টার দিকে কেউ একজন তাকে ফোন করে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে ভোর চারটার দিকে আমাদের ফোন আসে নুরা মারা গেছে। রাস্তায় দুর্ঘটনায় পড়ে আছে। পরে আমরা তুরাগ থানায় যাই।

এ বিষয়ে তুরাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোবিন্দ দাস বলেন, আমি রাতের ডিউটিতে ছিলাম৷ খবর পেয়ে আমি ঘটনা স্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করি। মরদেহর শরীর ক্ষতবিক্ষত ছিলো। তার মস্তিষ্ক বের হয়ে রয়েছিলো। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। রাতে রাস্তা পারাপারের সময় কোনো এক অজ্ঞাত গাড়ি তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থার প্রক্রিয়া চলছে।