ভারতের অন্ধ প্রদেশের পুষ্প রাজ নামের এক কুলির জীবনীর উপর নির্মাণ করে বানানো হয়েছে পুষ্প নামের ছবিটি। দক্ষিণী ছবির বিখ্যাত নায়ক আল্লু অর্জুনের অভিনয়ে ছবিটি ভারতে ব্যপক সাড়া ফেলেছে।

তবে যে অন্ধ প্রদেশের পুষ্পকে নিয়ে ছবিটি বানানো হয়েছে সেখানেই এটি মুক্তির প্রথমদিন সবচেয়ে কম আয় করেছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, প্রথমদিন অন্ধ প্রদেশে ১ হাজার ১০০টি হলে সিনেমাটি প্রদর্শন করে ১৩ কোটি রূপির টিকিট বিক্রি হয়েছিল। ভারতের অন্য প্রদেশগুলোতে এর আয় ছিল অনেক বেশি। তেলেঙ্গানাতে ৬০০ হল থেকেই প্রথমদিন আয় হয়েছিল ১১ কোটি রূপি।

এর কারণ হলো অন্ধ প্রদেশের সরকার ছবির টিকেটের একটি দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে। আগে যে দামে ছবির টিকেট বিক্রি হতো সেই দাম কমিয়ে দেয়া হয়েছে। অন্ধ প্রদেশের কিছু কিছু জায়গায় টিকেটের দাম হলো ৫ থেকে ১৫ রূপি। আর সিনেপ্লেক্সগুলোতে টিকেটের সর্বোচ্চ দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫০ কোটি রূপি।

অন্ধপ্রদেশে সিনেমা প্রদর্শনের সঙ্গে জড়িত দীপক নামে এক ব্যক্তি দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানান, এখানে হল মালিকের সঙ্গে একজন ছবির পরিবেশককে হল ভাড়া হিসেবে নিতে হয়। যদি একজন পরিবেশক ১০ হাজার রূপিতে হল ভাড়া করেন এবং ছবিটি ৫০ হাজার রূপি আয় করে। তাহলে পরিবেশক পাবেন ৪০ হাজার রূপি। কিন্তু ছবি না চলে তবুও হল মালিককে ভাড়া দিতে হবে। এটি করা হয়েছে যেন হল মালিকরা লসে না পড়েন এবং হল বন্ধ না করে দেন। কিন্তু এইসব নিয়মের কারণে ছবি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের লাভের চেয়ে ক্ষতি হয়েছে বেশি।

সূত্র : দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।