দুই মাস আগেই দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। যদিও খবরটি জানাজানি হয় গতকাল বৃহস্পতিবার।

পূর্ণিমার প্রথম স্বামীর নাম আহমেদ ফাহাদ জামাল। এর আগে বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা গেলেও ফাহাদকে ডিভোর্সের বিষয়ে কোন তথ্যই আসেনি গণমাধ্যমে।

গত ২৭ মে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন পূর্ণিমা। যে খবরও পূর্ণিমার ঘনিষ্ঠজনরা ছাড়া আর কেউ জানত না। এমনটি পূর্ণিমার প্রথম স্বামী ফাহাদও জানতেন না তার সাবেক স্ত্রীর দ্বিতীয় বিয়ের খবর।

দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টি এতোদিন কেন আড়ালে রেখেছিলেন, তার কারণও জানিয়েছেন পূর্ণিমা। জানালেন কেন ফের বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হলেন সে কথাও।

‘মনের মাঝে তুমি’খ্যাত চিত্রনায়িকা জানালেন, প্রথম সংসারে তার একটি মেয়ে আছে, যার বয়স ৮ বছর। সে কথা বিবেচনায় রেখেই এমনটা করেছেন।

পূর্ণিমা বলেন, ‘(ফাহাদের সঙ্গে) আমার সম্পর্ক নেই প্রায় তিন বছর। যেহেতু আমার একটি মেয়ে আছে। মেয়ের বাবা সে। মেয়েটা স্কুলে পড়ে। সব বিবেচনা করে আমরা বিষয়টি জানাতে চাইনি। তাছাড়া বিয়ের পরেই তিনিসহ পরিবারের অন্যরা অসুস্থ ছিলেন। কেউ কেউ করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। এ জন্য বিয়ের খবর জানাতে দেরি হয়েছে।’

দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘প্রথম বিয়ের সম্পর্কে আমার আগে থেকেই ঝামেলা ছিল। তা না হলে তো কেউ ইচ্ছা করে সংসার ভাঙতে চায় না, তাই না! নতুন জীবনে পা দিয়েছি। সবার কাছে দোয়া চাই। ’