প্রতিবেদক,তানোর (রাজশাহী): রাজশাহীর তানোরের তালন্দ ইউনিয়ন (ইউপি) আওয়ামীলীগ সভাপতি নাজিমুদ্দীন বাবুর হাতে ৫ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি ও ইউপি সদস্য আবুল হাসানকে লাঞ্চিতের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার (১১আগস্ট) তালন্দ ইউপির লালপুর বাজারে এই ঘটনা ঘটেছে। এদিন বাবু গ্রুপ ও হাসান গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়ার
ঘটনায় এলাকায় চরম আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয়রা জানায়, নাজিমুদ্দীন বাবুর চরম দৌরাত্বে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে
উঠেছে। বাবুর একাধিক নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনায় দলের ভাবমূর্তিও ক্ষুন্ন হচ্ছে। এদিকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা
বাবুকে দল থেকে বহিস্কার ও তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে।

এদিকে, রোববার সকালে ফরহাদ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ইউপি
আওয়ামী লীগ সভাপতি নাজিমুদ্দীন বাবু, তার স্ত্রী ও কন্যার বিরুদ্ধে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দেয়। এতে বলা হয়, নাজিমুদ্দীন বাবু একজন লুচ্চা নারী কেলেঙ্কারীর
অভিযোগে একবার তাকে জুতার মালা পরিয়ে গ্রামে ঘোরানো হয়েছে।

এছাড়াও তার শ্যালককে বিদেশ পাঠিয়ে তার স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনসহ নানা ধরনের আপত্তিকর কথা বলা হয়েছে। এদিকে বাবুর সন্দেহ ফরহাদ নামের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে তার বিরুদ্ধে আবুল হাসান এসব অপপ্রচার করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুধুমাত্র সন্দেহের বশবর্তী হয়ে রোববার বাবু তার লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সকালে লালপুর বাজারে আবুল হাসানের কীটনাশকের দোকানে হামলা করে ভাংচুর ও আবুল হাসানকে বেধড় মারপিট করে দোকানের ক্যাশ বাক্স থেকে প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ।

আবুল হাসান প্রাণ বাঁচাতে পাশের একটি দোকানে গিয়ে আশ্রয় নিলে সেখানেও বাবুর লোকজন তার উপর হামলা করে। এসময় আবুল হাসানের ভাই হুসেন তাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসলে তাকেও বেড়ক মারপিট করা হয়েছে।

পরে আবুল হাসানের স্বজনরা তাদের জখম অবস্থায় উদ্ধার করে তানোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে বাবু গ্রুপ ও আবুল হাসান গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে তানোর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে
পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।

পরদিন সোমবার দিবাগত রাতে নাজিমুদ্দীন বাবুর লোকজন আবারো
হাসান গ্রুপের চার জনকে বেধড়ক মারপিট করে বলে অভিযোগ উঠে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তালন্দ ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজিমুদ্দীন বাবু এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আবুল হাসানের লোকজন তার বাড়িতে হামলা করতে আসলে তার লোকজন তাদের প্রতিহত করা হয়েছে।

তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় নাজিমুদ্দীন বাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগ হয়েছে, তিনি বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।