পত্রিকার পাতায় হুবহু নিউজটি পড়তে ছবিতে ক্লিক করুন

বিশেষ প্রতিবেদক

আওয়ামী চেতনা,দলীয় গঠনতন্ত্রের ধার না ধেরে ঝিনাইদহে কৃষকলীগ নিয়ে খাম খেয়ালি কাজ শুরু করেছেন এড. রশীদ। ১৭ মার্চে কালীগঞ্জের বুজরুক মুন্দিয়া গ্রামের ইমান আলী রাজাকারের ছেলে সেলিম রেজাকে নিয়ে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধীতে ফুল দেন জেলা কৃষকলীগের নেতৃবৃন্দ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারি দল এবং আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রধান সহযোগি সংগঠন বাংলাদেশ কৃষকলীগ। কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা সদস্য হওয়ার কারণে ব্যক্তিগত লোভ-লালসা মেটাতে ব্যবহার করছেন এড. রশীদ।

জানাগেছে, সেলিম রেজাকে কালীগঞ্জ পৌর কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক বানাতে মোটা অংকের টাকাও লেনদেন হয়েছে। সেলিম রেজাকে পৌর কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঝিনাইদহ-৪ আসনের সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার। তিনিও সেলিম রেজাকে বাদ দিতে অনুরোধ করেন কৃষকলীগ নেতৃবৃন্দকে। বৃহস্পতিবার দৈনিক এই আমার দেশে প্রকাশিত “ ঝিনাইদহে রাজাকারের ছেলেকে কৃষকলীগের নেতা বানিয়ে শহরে এড. রশীদের রাজাকার বিরোধী মিছিল!” শিরোনামের সংবাদটি কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সভাপতি সমীর চন্দ্র ও সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপির নজরে আসলে তারা এই বিষয়ে সাংগঠনিক তদন্ত শেষে ব্যবস্থার কথা জানান। এদিকে বঙ্গবন্ধুর সমাধীতে রাজাকার পুত্র নিয়ে ফুল দেওয়াতে ক্ষোভে ফুসছেন আওয়ামী লীগ সহ মুক্তিযোদ্ধারা। আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে জামায়াত-বিএনপির ভোটারদের ছাড়ায় আওয়ামী লীগ বিপুল জনপ্রিয়তার সাথে সরকার গঠন করে। ৩ মেয়াদের দলীয় সরকারের সময় কিছু নেতাদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ড ও হাইব্রিড লালনের কারণে আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা কমেছে সারাদেশে। ঝিনাইদহ কৃষকলীগের রেওয়াজ রয়েছে এড. রশীদের বিরুদ্ধে গেলেই কমিটি বাতিল। তার সাথে থাকলে কোন পরিবারের সন্তান সেটা বড় কথা নয়। কৃষকলীগে পদ পাবে। সম্প্রতি ফেসবুকে কিছু ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা গেছে, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম সোম বাসে করে রাজাকার পুত্র সেলিম রেজাকে সাথে নিয়ে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে যাচ্ছে। আবার আরেকটি ছবিতে দেখাগেছে, জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমএস উজ্জ্বল বঙ্গবন্ধুর সমাধীতে ফুল দিচ্ছেন রাজাকার পুত্র সেলিম রেজাকে সাথে নিয়ে। যেই ছবি এমএস উজ্জ্বল নিজের আইডি থেকেই ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। এদিকে নিজেই রাজাকার পুত্র ও হাইব্রিডদের লালন করে আবার শহরে রাজাকার বিরোধী মোটরসাইকেল শোডাউন করে এলাকায় হাসির পাত্রে পরিণত হয়েছেন।