ইব্রাহিম আলম সবুজ রাজারহাট কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ রাজারহাট উপজেলার উমরমজিদ ইউনিয়নের ফুলকা আটহাজারী গ্রামের শুকুর আলীর বাড়ি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ আইয়ুব আলী ও তার ভাড়াটে মাস্তান বাহিনী। স্থানীয় সুত্রে জানা যায় শুকুর আলী ও আইয়ুব আলীর মধ্যে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরত চলে আসছিল। এরেই জের ধরে গত রবিবার মধ্য রাতে আইয়ুব গং অতর্কিত হামলা চালিয়ে শুকুর আলীর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় এবং তাদের সাথে থাকা ভাড়াটে মাস্তানদের দিয়ে বাড়িতে ইটপাটকেল ছুঁড়ে মারতে থাকেন। এতে শুকুর আলী ও তার স্ত্রী হাজরা বেগম সহ ৫জন আহত হন।

আহতদের মধ্যে দুজন শুকুর আলী ও হাজরা বেগম রাজারহাট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। শুকুর আলীর ছেলে হারুন মিয়া গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাকে কুড়িগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।শুকুর আলীর ভাতিজা হান্নান মিয়া অভিযোগ করে বলেন আইয়ুব আলীর সাথে জমাজমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে কিন্তু এভাবে তারা গভীর রাতে অতর্কিত হামলা করে বাড়িতে আগুন দিয়ে মালামাল লুটতরাজ করে নিয়ে যাবে তা কল্পনাও করতে পারিনি। শুধু তাই নয় প্রতিহিংসা চরম পর্যায়ে গিয়ে তারা চাচার পুকুরের বিষ প্রয়োগ করে প্রায় এক লক্ষ টাকার মাছ নষ্ট করেছে। এই ঘটনায় শুকুর আলী বাদী হয়ে রাজারহাট থানায় আইয়ুব আলী, তৈয়ব আলী ও আব্দুল মালেক কে প্রধান আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেন।

এবিষয়ে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ রাজু সরকার বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নিবো।