অমিত কর্মকার, লোহাগাড়া প্রতিনিধিঃ লোহাগাড়ায় শপিং সেন্টার সমূহে ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে ঈদের কেনাকাটা। ক্রেতা সাধারণের ভিড় দিন দিন বাড়ছিল। এসংবাদ পেয়ে অভিযান চালায় ভ্রম্যমান আদালত। গত ১৭ মে রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় লোহাগাড়া বটতলী মোটর ষ্টেশনে এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌছিফ আহামেদ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে লোহাগাড়ায় দোকানপাট খোলা রাখায় মার্কেটগুলোতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উপজেলার বটতলী মোটর স্টেশনস্থ হাজ্বী বদিউর রহমান মার্কেটেসহ ৯ প্রতিষ্ঠানকে মোট ১লক্ষ ৩৫টাকা জরিমানা দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযানে সাথে ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কক্সবাজার-১০ পদাতিক ডিভিশনের মেজর শেখ ফয়সাল আল বশির, লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ, এসআই পার্থসারথি হাওলাদার,উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ের সিএ মুহাম্মদ ইলিয়াস রুবেল।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌছিফ আহমেদ জানান, উপজেলার মার্কেটের ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করে দোকানপাট খোলা রাখায় বদিউর রহমান মার্কেটে এশিয়া সু-স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, মেসার্স নিউ গার্মেন্টসকে হাজার টাকা, ডুবাই স্পোর্টসের মালিকানাধীন মোস্তফিজুর রহমানকে ২০হাজার টাকা, হামিদিয়া গার্মেন্টসের মালিকানাধীন ফরিদুল আলমকে ২০হাজার, একতা স্টোরের মালিক আবদুস সালাম ২০ হাজার টাকা, এরাবিয়ান গার্মেন্টসের মালিক মমতাজ উদ্দিন ২০হাজার টাকা, হোসাইন স্টোরের মালিকানাধীন আবু সুফিয়ান কে ১০হাজার টাকা, মোবাইল কর্ণারকে ৫ হাজার টাকা,খানে আলমের ফলের দোকানকে ৩০হাজার টাকাসহ মোট ১লক্ষ ৩৫হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করা হয়। তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে মার্কেটের ব্যবসায়ীরা দোকানপাট খোলা রাখলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।