নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজধানী ঢাকার শাহবাগে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া চলমান পরীক্ষাগুলো স্থগিতের প্রতিবাদে একদল শিক্ষার্থী বিক্ষোভের চেষ্টা করেন। এ সময় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ জন শিক্ষার্থীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাহবাগ থানায় নিয়ে গেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে শিক্ষার্থীরা চলমান পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে শাহবাগ মোড়ে বিক্ষোভ করার জন্য জড়ো হচ্ছিলেন, জড়ো হওয়ার সময় পুলিশ আটককৃত ১০ জন শিক্ষার্থীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যান। ঢাকা মহানগর মেট্রোপলিটন পুলিশের রমনা জোনের (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটকের বিষয়ে ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, তারা কোথায় থেকে এসেছে? কেন এসেছে? এগুলো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদেরকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে যথাসময়ে ছেড়ে দেওয়া হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বা ঢাবির অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা চলমান পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার, হল ও ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার দাবিতে ঢাকার নীলক্ষেত মোড়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি তাদের আন্দোলনের ফলে চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষাসমূহ শর্তসাপেক্ষে নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।

বুধবার রাতেই সাত কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ঢাবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহলুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাবির অধিভুক্ত সাত কলেজের ২০১৯ সালের তৃতীয় বর্ষ স্নাতক পরীক্ষার্থীদের স্থগিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার কেন্দ্রও ঘোষণা করার পাশাপাশি জানানো হয়েছে, প্রতিদিন সকাল ৯ টায় পরীক্ষা শুরু হবে এবং পরীক্ষাগুলো ২৮ ফেব্রুয়ারি, ৩, ৬, ৯ ও ১৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও স্নাতক চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষাগুলো ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২, ৪ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে এবং স্নাতক চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষাও প্রতিদিন সকাল ৯ টায় পরীক্ষা শুরু হবে বলে জানা গেছে।