শাহাদত হোসাইন, গাজীপুর থেকেঃ গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী বাজারের কেন্দুয়া ব্রীজ বর্তমানে খুবই দুর্বল হয়ে গেছে।

অনাকাঙ্ক্ষিত বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আগেই ব্রীজটি সংস্কার অথবা পুনঃনির্মাণ করা একান্ত অপরিহার্য হয়ে পড়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

সরেজমিনে দেখা যায়, ব্রিজের রেলিং  ভেঙ্গে যাওয়াসহ উপরের সিমেন্টের তৈরী পাটাতন ধ্বসে যাওয়ায় এ ব্রিজটি এখনো মরণ ফাঁদ। ঝুঁকি নিয়েই পার হতে হয় হাজারো মানুষের।


একসময়ের ব্যবসা বাণিজ্যের অন্যতম প্রাণ কেন্দ্র ছিলো বরমী বাজার। এখানে বাজারের দিন ছাড়াও নিত্য প্রয়োজনে আসে হাজারো মানুষ। এতো মানুষের চলাচলের জন্য নির্মিত ব্রীজ অনেক পুরাতন হয়ে গেছে। বরমী বাজারের নলজোড়া খালের উপর নির্মিত কেন্দুয়া ব্রিজটির বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে পড়ায় ঝুঁকিতে পড়েছে চলাচলকারী হাজারো/লাখো মানুষ। যে কোন মুহূর্তে ঘটতে পারে বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনা। 

বড় কোন দূর্ঘটনা ঘটার আগেই যেন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি পড়ে বা কর্তৃপক্ষ এর ব্যবস্থা নেয় এমন দাবি জানাচ্ছেন  বরমীর জনসাধারণ।

স্থানীয় এলাকাবাসীরা জানান, ১৯৮০ সালের দিকে এই ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছিল। ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তা মেরামত না করায় পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিকল্প কোনও যাতায়াত পথ না থাকায় মরণফাঁদ জেনেও চলাচল করছে এলাকাবাসী।

বরমী বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম সরকার বলেন, এই ব্রিজটির টেন্ডার হয়েছে আশা করি শীঘ্রই কাজ শুরু হবে।

বরমী ইউনিয়ন ইউপি সদস্য  হারুন খন্দকার জানান, ব্রীজের জন্য টেন্ডার হয়েছে শীঘ্রই আরও প্রসস্থ করে কাজ শুরু হবে। 

শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান জানান, বরমী বাজারের এই ব্রিজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অতি দ্রুত ব্রিজটি সংস্কার করা হবে বলে জানান তিনি।