নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সরকারের প্রতিটি পদক্ষেপ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জন্য। খাদ্যের সঙ্গে পুষ্টি ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করণের পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) গণভবন থেকে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবসের অনুষ্ঠানে সংযুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপই হচ্ছে বাংলাদেশের একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করা। সবার আগে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই হচ্ছে সে পরিবর্তনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

এছাড়াও পুষ্টির নিশ্চয়তা বিধান করার প্রয়োজনীতার কথাও উল্লেখ করে তিনি বলেন, খাদ্যের সঙ্গে সঙ্গে পুষ্টির নিশ্চয়তাও একান্তভাবে প্রয়োজন। শুধু পুষ্টি নিরাপত্তাই নয়, এর সঙ্গে আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিও জড়িত। কাজেই সেদিকে লক্ষ্য রেখেই পরিকল্পিতভাবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলকে নিজের খাদ্য নিজে উৎপাদনের তাগিদ দিয়ে বলেন, একটু জমিও যদি থাকে, তাতে নিজের ঘরের জন্য যা প্রয়োজনীয় সেটা চাষ করুন। তবেই খাদ্য ঘাটতি কমানো সম্ভব হবে। এমনকি সকলের চেষ্টায় খাদ্যের উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে।

সুষম খাবারের বিষয়ে নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে তিনি আরও বলেন, এখন মানুষের সামর্থ্য বেড়েছে। মানুষ এখন ভাতের পাশাপাশি কিছু আমিষও ক্রয় করছে। এজন্য সুষম খাবারের দিকে নজর দিতে হবে এবং এর জন্য প্রচার-প্রচারণাও বাড়াতে হবে। জনগণকে জানাতে হবে যে শিশুরা কী খাবে, বৃদ্ধরা কী খাবে আর একজন গর্ভধারিণী মা কখন কী খাবে?