খেলা ডেস্ক : ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ বাংলাদেশকে দুহাত ভরে দিয়েছে। টেস্টে প্রতিপক্ষকে ধবলধোলাই করার পর ওয়ানডেতেও সিরিজ জয়। কোচ স্টিভ রোডসের ছাত্রদের নিয়ে বেজায় খুশি থাকার কথা। তবে শিষ্যদের নিয়ে গর্বিত হতে গেলে সুনীল যোশির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পারবেন না রোডস। প্রধান কোচের তবু পেস বোলার কিংবা ব্যাটসম্যান নিয়ে অতৃপ্তি থাকতে পারে। বাংলাদেশের স্পিন কোচের যে সে চিন্তাও নেই। তাঁর ছাত্ররা যে সবাই আছেন দুর্দান্ত ফর্মে।

কন্ডিশন কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের স্পিনাররা দুর্দান্ত করছেন। টেস্ট সিরিজে তো ৪০টা উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন স্পিনাররাই। ওয়ানডে সিরিজেও স্পিনাররাই উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের ব্যতিব্যস্ত রেখেছেন। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে সাকিব আল হাসান যেমন একাই হারিয়ে দিলেন সফরকারীদের। পুরো সফরটাই বাংলাদেশের স্পিনারদের চোখরাঙানি সহ্য করতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানদের। তবে এর মাঝেও আলাদা হয়ে আছেন সাকিব।

সুনীল যোশি তাই তাঁর স্পিনারদের নিয়ে কথা বলতে গিয়েও আলাদা করে সাকিবের কথা বললেন। তাঁর দাবি কোচ হিসেবে সাকিবের কাছে তাঁর আর বেশি কিছু চাওয়া নেই, কারণ সাকিব নিজে থেকেই তো উজাড় করে দিচ্ছেন, ‘সাকিব অবিশ্বাস্য এক খেলোয়াড়। আমরা জানি কতটা প্রতিভাবান সে। শুধু বাংলাদেশেই না। সব সংস্করণেই দেখুন, হোক সেটা টেস্ট কিংবা ওয়ানডে অথবা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। আপনি যদি দেখেন একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৪ ওভারে ২০ রানে ৫ উইকেট, তাহলে আপনি একজন স্পিন কোচ হিসেবে এর বেশি কিছু চাইতে পারেন না। আমার ধারণা এ কারণে সাকিব পুরো ভিন্ন শ্রেণিতে পড়ে।’