খোরশেদ আলম, ঢাকা জেলা  প্রতিনিধি: জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার হিসেবে সাভারের আশুলিয়া থানাধীন পাথালিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের গৃহহীন ও ভূমিহীন ৪১ পরিবারকে পাকা ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে সরকার। ইত্যে মধ্যে ঘরগুলো সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত হয়েছে। আগামী ২৩ জানুয়ারী শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বাড়িগুলো ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন।প্রকল্পের নকশানুযায়ী যথাযথভাবে উপরে রঙিন টিনের ছাউনি দ্বারা নির্মিত ১৯ দশমিক ৬ ফুট বাই ২২ ফুটের ওই সব সেমিপাকা ঘরে রয়েছে দুইটি বেড রুম, কিচেন রুম, বারান্দা ও টয়লেট। অন্যদিকে বাড়ি নির্মাণের পাশাপাশি বাড়িগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য চারদিকে দৃষ্টিনন্দন সীমানা প্রাচীর রয়েছে। সেই সাথে ওভারহেড ট্যাংকির মাধ্যমে পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা রয়েছে। বাড়িগুলোর জন্য টয়লেটের সেপটিক ট্যাংক ও ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাড়তি সুবিধা সৃষ্টিকারী এই কাজগুলোর জন্য বিশেষ বরাদ্দ দিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা: এনামুর রহমান এমপি। ঘর পাওয়া রেজিয়া বেগম নামের ষাটোর্ধ্ব এক মহিলা বলেন, দীর্ঘ দিন যাবৎ আমরা ভাড়াবাসায় থেকে কোনো মত দিন পার করি। এই ঘর পাওয়াতে আমরা অনেক আনন্দিত। তাই আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই। জমেলা বেগম (৪০) নামের এক নারী জানান,  নদী ভাঙ্গনের পর হতে আমরা ভুমিহীনভাবে বসবাস করছি। একেক সময় একেক বাড়িতে ভাড়া থেকে অনেক কষ্টের মধ্যে দিন পার করছি। এই ঘর পাওয়াতে আমাদের একটি কুল হয়েছে। তাই আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি ধন্যবাদ জানাই। এ ব্যাপারে পাথালিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওর্য়াডের সদস্য শফিউল আলম সোহাগ বলেন, জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আশ্রয়হীনদের মাঝে গৃহনির্মাণের যে প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। সেই প্রকল্পের আওয়াতায় প্রথমধাপে পাথয়িলার ৩নং ওয়ার্ডবাসীর জন্য গৃহনির্মান করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী, উপজেলা চেয়ারম্যন ও সাভার উপজেলার নির্বার্হী কর্মকর্তা সহ উপজেলার প্রশাসনের সকলকে ধন্যবাদ জানাই। সেই সাথে এই মহৎ কাজের সাথে অংশীদার থাকায় নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে।   এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীর আরা নিপা জানান, ঢাকার সাভার উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য প্রথম ধাপে ৪১ টা বাড়ির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। মাননীয় প্রধামন্ত্রীর এই প্রকল্পকে সর্বোচ্চ আন্তরিকতা ও স্বচ্ছতার সাথে বাস্তবায়নের জন্য যারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছেন তাদের সকলকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানাই আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।