আব্দুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টারঃ সিরাজগঞ্জ-কড্ডা আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক ও বাস চাপায় পুত্র-কন্যাসহ শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় চালক গুরুতর আহত হয়েছে।রোববার (৭ ফেব্রুয়ারী) বেলা সাড়ে বাড়োটার দিকে শহরের এস.বি ফজলুল হক সড়কের কালাচাঁন মোড় এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে।নিহত রুনী খাতুন (৩৮) বনবাড়ীয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ও পৌর এলাকার মিরপুর দক্ষিণপাড়া মহল্লার মাসুদূর রহমানের স্ত্রী। তার ছেলে ওয়াদি (১২) ও কন্যা সোয়াইবা (৬)।আহত অটোরিক্সা চালক চান মিয়া (২৫) পৌর এলাকার একডালা সুইচগেট এলাকার বাসিন্দা।
এলাকাবাসী জানান নিহত রুনী চশমা মেরামতের জন্য ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে অটোরিক্সাযোগে শহরে যাচ্ছিল। এস.বি ফজলুল হক সড়কের কালাচাঁন মোড় এলাকায় পৌছলে যাত্রাবাহী একটি বাস ট্রাকটিকে ওভারটেক করছিল। এ সময় বাসটি অটো রিক্সাটিকে চাপা দিলে অটোরিক্সাটি ট্রাকের মুখোমুখি হয়ে ধুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুসহ রুনী মারা যায়। এতে গুরুতর আহত হয় চালক ও সোয়াইবা নামের এক নারী। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসক সোয়াইবাকে মৃত ঘোষণা করে।ঘটনাস্থলে উপস্তিত হয়ে সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী (বিপিএম,পিপিএম) জানান, দুর্ঘটানার খবরটি জানার সাথে সাথেই পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মরদেহ উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে এবং ঘাতক বাসটিকে আটক করা হয়।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ ঘটনায় এখনো পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়নি।এ ঘটনায় পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।