এস কে আলীম, কপিলমুনি (খুলনা) প্রতিনিধিঃ
পাইকগাছা উপজেলার ১ নং হরিঢালী ইউনিয়নে ভিজিডি কার্ডের জমাকৃত টাকা কম দেওয়ায় বিক্ষোভ করেছে সুবিধাভোগিরা। বুধবার সকাল ১০ টায় ১ নং হরিঢালী ইউপি ভবন চত্ত্বরে ইউনিয়নের ২৪৭ জন ভিজিডি কার্ডধারী সুবিধা ভোগিরা এ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। প্রায় ৩ ঘন্টা যাবৎ তারা বিক্ষোভ করেছেন বলে জানা যায়।

এ সময় চেয়ারম্যান আবু জাফর সিদ্দিকী পরিষদে না থাকায় সংশিস্নষ্ট ইউপি সচিব বেলাল হোসাইন বিক্ষোভ কারিদের তোপের মুখে পড়ে। এক পর্যায়ে আগামি ১১ মার্চ তারিখে তাদের প্রত্যেকের জমাকৃত ১৮ শত টাকা পরিশোধ করার অঙ্গিকার করলে তারা শাšত্ম হন।

সরেজমিনে গেলে শত শত সুবিধাভোগি পুরম্নষ মহিলারা জানান,তাদের জমাকৃত সব টাকা পরিশোধের ধার্যকৃত দিন আজ। অথচ ১০৭’ জনকে মাত্র ১ হাজার টাকা করে দিয়ে বন্দ করে দেওয়া হয়। এ কারণে আমরা ক্ষুব্ধ হয়েছি। বহু দুর দুরাšত্ম থেকে কেউ পায়ে হেটে, অথবা টাকা খরচ করে যানবাহনে এসে টাকা কম পাওয়া ও না পাওয়ার ঘটনা আমাদের সাথে প্রতারণা করার শামিল।

হরিঢালী গ্রামের ভিজিডি কার্ড ধারী আমেনা খাতুন জানান, টাকা কম দেয়ার কারণ জানতে চাইলে আমাদের সাথে খারাপ আচারণ করেছে সংশিস্নষ্ট সচিব বেলাল হোসাইন ও ১ নং ওয়ার্ডের রোকন মেম্বার। শ্রীরামপুর গ্রামের সাত্তার হাজরার স্ত্রী আছমা বেগম জানান, আমাদের টাকা আমাদের দিতে এতো গড়িমসি কেন? দরগা মহলের রেবা খাতুন ও উলুয়াডাঙ্গা গ্রামের আম্বিয়া খাতুন জানান,আমাদের জমা কৃত টাকা ভিজিডি কার্ডে জমা না হওয়ায় আমরা বিস্মীত হয়েছি। তারা আরও জানান এ পরিষদের ক্ষমতাধর গ্রাম পুলিশ খালেকের কাছে সব টাকা জমা দিয়েছি অথচ কার্ডে টাকা জমা না থাকায়-আমাদেরকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে।তবে টাকা কম দেয়া বা অর্ধেকের বেশি কার্ডধারীদের কোন টাকা না দিয়ে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা জানতে চাইলে সচিব বেলাল জানান,সুবিধাভোগিদের টাকার একটি অংশ এনজিওর কাছে আছে আর একটি অংশ চেয়ারম্যানের কাছে আছে। চেয়ারম্যান আগামি ১১ ই মার্চ তারিখে টাকা দিবে বলে আমাকে জানিয়েছেন সেই সূত্রে সুবিধাভোগিদের ঐ তারিখে টাকা দেওয়ার কথা জানিয়েছে। আর সংশিস্নষ্ট এনজিও জানান, কার্ডধারীদের আমাদের ২ লক্ষ ২৭ হাজার ১ শত টাকা আছে, এই টাকা দেওয়ার জন্য এসেছি এবং আনুপাতিক হারে-১০৭ জনকে ১ হাজার টাকা করে দি”িছ। যদিও ইউপির সমন্বয়ে এ টাকা দিতে হয়। তবে চেয়ারম্যানের নিকট ২৩৭ জন কার্ডধারিদের ১ লক্ষ ৭৭ হাজার টাকা জমা থাকলেও ওই টাকা আজ দিতে না পারায়, আগামি ১১ই মার্চ দিবে বলে জানতে পারি। এজন্য আমরাও আজ সবাইকে না দিয়ে আগামি ১১ মার্চ তারিখে সমন্বয় করে দিয়ে দিব বলে জানান।