হেলাল উদ্দিন, তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ একমাত্র শিক্ষাই জাতীয় ও সামাজিক সমস্যা গুলোর স্থায়ী সমাধান করতে পারে। শিক্ষা আর অভিজ্ঞতার সমন্বয়েই জীবনে পূর্ণতা আসে। তারই ধারাবাহিকতায় পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের আদিবাসী শিক্ষার্থীদের উৎসাহ বৃদ্ধির লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মাঝে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

আদিবাসী শিক্ষার্থী সম্মাননা প্রদান কমিটির উদ্যোগে আজ ১৩ মার্চ শনিবার সকাল ১১টায় বাঘলবাড়ী কৈ আদিবাসী কমিউনিটি সেন্টারে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পাশকৃত ৩৫ জন আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মাঝে সম্মাননা স্মারক হিসেবে “বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী” ও “তুমিও জিতবে” বই প্রদান করা হয়। এছাড়াও শিক্ষা ক্ষেত্রে অনন্য অবদান রাখায় একটি শিক্ষা পরিবারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

আদিবাসী শিক্ষার্থী সম্মাননা প্রদান কমিটির আহ্বায়ক ও জাতীয় আদিবাসী পরিষদ পাবনা জেলা কমিটির সভাপতি রামপ্রসাদ মাহাতো’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এলজিইডি’র প্রকল্প পরিচালক মমিন মুজিবুল হক টুটুল সমাজী। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাটমোহর-ভাংগুড়া-ফরিদপুর অঞ্চলের ৬ দফার প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুল খালেক, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহান, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, হান্ডিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ মোহসীন আলী, হান্ডিয়াল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, সমাজী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু শাহিন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সাদ্দাম হোসেন প্রমূখ।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আদিবাসী ছাত্র পরিষদ চাটমোহর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক ও আদিবাসী শিক্ষার্থী সম্মাননা প্রদান কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক অপূর্ব কুমার সিং। এ সময় সেখানে আরো অনেক ব্যক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন।