নিজস্ব প্রতিবেদক : বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তোলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে কয়েকটি প্যানেল। যেখানে রয়েছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বাম জোট, ছাত্র ফেডারেশন ও স্বতন্ত্র জোট। এসব সংগঠন এই নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় তফসিল ঘোষণার মাধ্যমে নতুন করে ভোট গ্রহণের দাবি জানিয়েছে। পৃথক সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলও নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে।

এদিকে বেগম রোকেয়া হলের ব্যালট বাক্স দেখতে গেলে কোটা সংস্কার আন্দোলনের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নূরের উপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই হামলার জন্য সংগঠনটি ছাত্রলীগকে দায়ী করেছে।

কুয়েত মৈত্রী হলে সিল মারা বস্তা ভর্তি ব্যালট বাক্স উদ্ধার, নুরুল হক নূরসহ বিভিন্ন প্রার্থীর উপর হামলাসহ বিভিন্ন হলে ভোট গ্রহণের অনিয়মের অভিযোগ করে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয় এসব সংগঠন। এসব প্যানেলের পক্ষে বামজোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। এ সময় তিনি আগামীকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রধর্মঘটেরও ডাক দেন।

এ সময় ডাকসু নির্বাচনে বিভিন্ন জোট থেকে হওয়া প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।