ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও স্বতন্ত্র জোটের পরাজিত ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি খান।

এই আমার দেশ ডেস্ক : ডাকসু নির্বাচনে পরাজিত সহসভাপতি (ভিপি) প্রার্থী ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সঙ্গে ছবি তুলতে অনীহা প্রকাশ করেছেন স্বতন্ত্র জোটের পরাজিত ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি খান। ছবি না তোলার এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) অডিটরিয়ামের মঞ্চে এ ঘটনা ঘটে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন মঙ্গলবার বিকালে নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুরের সঙ্গে কুশলবিনিময় করতে গেলে সেখানে অন্য প্যানেলের প্রার্থীরাও ছিলেন। এ সময় নুরের সঙ্গে কোলাকুলি করে ছবি তোলেন শোভন। পরে তিনি সেখানে থাকা অন্যদের সঙ্গেও কথা বলেন। একপর্যায়ে স্বতন্ত্র জোটের প্রার্থী অরণির সঙ্গে শোভনের একটি ছবি তুলতে চান সেখানে থাকা এক ছাত্র।

এ সময় অরণি ছবি তুলতে অনিহা প্রকাশ করেন এবং শোভনের সামনেই তিনি বলেন, ‘না ভাই কালকে রোকেয়া হলে এই লোক নিজে আমাদের বলছে মারধর করতে। এর সঙ্গে ছবি তুলব না। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে ছবি তুলি না।’ এর পর তাদের আশপাশে থাকা সবাই হাততালি দিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

অরণি এ কথা বলার পর শোভন কিছু না বলে সেখান থেকে চলে যান। এর পর তাদের ওই কথোপকথনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক শোভনকে ফিরিয়ে দেয়ার পর সংবাদিকদের কাছে অরণি বলেন, ‘ছাত্রলীগ আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। তাদের আমরা বিশ্বাস করি না। তাদের সঙ্গে কুশলবিনিময় করতে চাই না।’ কারও মিষ্টি কথায় তিনি ভুলতে চান না বলেও জানান পরাজিত স্বতন্ত্র এ প্রার্থী।