নিজস্ব প্রতিবেদক : ৩৭তম বিসিএস পরীক্ষায় ক্যাডার পদে সুপারিশপ্রাপ্ত নন এমন প্রার্থীদের মধ্য থেকে নন-ক্যাডার প্রথম শ্রেণির পদে ফলাফল প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

বুধবার বিকালে কমিশনের ওয়েবসাইটে এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়। তার আগে দুপুরে অনুষ্ঠিত কমিশনের বিশেষ সভায় প্রথম শ্রেণির (৯ম গ্রেড) শূন্যপদে ৫৭৮ জন প্রার্থীকে নন ক্যাডার ১ম শ্রেণির পদে সাময়িকভাবে কমিশন সুপারিশ করে। এবারই প্রথম কোন বিসিএস থেকে সর্বোচ্চ সংখ্যক প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে চাকরির সুপারিশ করা হয়েছে।

পিএসসির সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, এই বিসিএসের নন-ক্যাডারে অপেক্ষমান সবাইকে নিয়মানুযায়ী চাকরির জন্য সুপারিশ করা হবে। কমিশন সেই লক্ষে কাজ করছে। তারা প্রত্যাশা করে ৩৭তম বিসিএসে আবেদনকারী বাকীরাও চাকরি পাবেন।

নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ (বিশেষ) বিধিমালার-১০ (সংশোধিত বিধিমালা-২০১৪) বিধান অনুযায়ী ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষায় ক্যাডার পদে সুপারিশপ্রাপ্ত নন এমন প্রার্থীদের মধ্য থেকে সংশ্লিষ্ট নিয়োগ বিধিতে উল্লেখিত শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পন্ন প্রার্থীদের ৩৭তম বিসিএস-এ অর্জিত মেধাক্রম ও সংশিষ্ট পদের/পদসমূহের নিয়োগে সুপারিশ করা হয়েছে। ১ম/২য় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদের জন্য আবেদনকারী প্রার্থীদের থেকে ৫৭৮ জন প্রার্থীকে প্রথমশ্রেণির পদে সুপারিশ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সমাজসেবা অধিদপ্তরের সমাজসেবা অফিসার পদে ১৫০ জন, খাদ্য অধিদপ্তরের উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক পদে ৫২ জন, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসার পদে ২৩ জন, নিবন্ধন পরিদপ্তরের সাব-রেজিস্ট্রার পদে ৪০ জন, পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক পদে ৩১ জনসহ সর্বমোট ৭৮ ক্যাটাগরির ৫৭৮টি পদের জন্য সুপারিশ করে ফলাফল প্রকাশ করে পিএসসি। বিস্তারিত ফলাফল পিএসসির www.bpsc.gov.bd দেওয়া হয়েছে।

২০১৮ সালের ১২ জুন ৩৭তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হয়। এতে ১৩১৪ জন ক্যাডার পান। বাকী ৩ হাজার ৪৫৪ জনকে নন ক্যাডারে অপেক্ষমাণ রাখা হয়েছে।

পিএসসির প্রতি পরীক্ষার্থীদের শতভাগ আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়ে পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক ইত্তেফাককে বলেন, আমরা সময়মতো ৩৭তম বিসিএস নন-ক্যাডারের প্রথম দফার ফলাফল প্রকাশ করেছি। আগামী এপ্রিলের মধ্যেই ৩৮তম বিসিএসের লিখিত এবং ৩৯তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হবে।