নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে তার সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে গেলেন ভিপি নুরুল হক নুরসহ ডাকসুর নবনির্বাচিত নেতারা।

শনিবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে একটি প্রাইভেটকারে চড়ে গণভবনে রওনা হন কোটা সংস্কারের আন্দোলনকারী বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা নুর।

নুরের সঙ্গে একই গাড়িতে ছিলেন ডাকসুর নবনির্বাচিত সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হুসেন। ডাকসুতে ছাত্রলীগের জয়জয়কারের মধ্যে এই দুজনই কেবল ভিন্ন প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন।

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সমন্বয়কারী হাসান আল মামুন বলেন, রাইড শেয়ারিং কোম্পানির গাড়িতে করে গণভবনে যান নুর ও আখতার।

ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে ডাকসুতে জয়ী নেতারা ক্যাম্পাস থেকে গণভবনে রওনা হন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে চড়ে।

ডাকসুর নবনির্বাচিত জিএস গোলাম রাব্বানী ও এজিএস সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনও বাসে ছিলেন। ভিপি পদে ভোটে অংশ নিয়ে নুরের কাছে হারেন শোভন।

আমাদের প্রতিবেদক জানান, বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ভিপি নুর এবং সমাজসেবা সম্পাদক আখতার গণভবনে ঢোকেন। গণভবনের ফটকে নেমেই জিএস রাব্বানীর সঙ্গে কোলাকুলি করেন নুর। এরপর একে একে সাবই ভেতরে ঢোকেন।

ডাকসুর পাশাপাশি বিভিন্ন হল সংসদের নির্বাচিত নেতারাও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে গেছেন। হল ও কেন্দ্রীয় সংসদ মিলিয়ে আড়াই শতাধিক জন গণভবনে ঢুকেছেন।

তিন দশক পর গত ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ভোটে কারচুপির অভিযোগ তুলে বিভিন্ন প্যানেলের পক্ষ থেকে পুনর্নির্বাচনের দাবি উঠেছে। নুরের প্যানেলও ৩১ মার্চের মধ্যে পুনর্নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে।