নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোট গ্রহণ শুরু হযেছে। ১৫ জেলার ১১৬ উপজেলায় একযোগে এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সরকার নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে।

ফাইল ছবি- সংগৃহিত

আজ সোমবার ১৮ মার্চ সকাল ৮টায় এসব উপজেলার ৭ হাজার ৩৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে; চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। এসব নির্বাচনী এলাকায় ভোটার রয়েছেন মোট ১ কোটি ৭৯ লাখ ৯ হাজার ৬ জন।

বাংলাদেশের বৃহত্তম বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপিসহ অধিকাংশ রাজনৈতিক দল উপজেলার সকল ধাপের ভোট বর্জন করেছে। আর সে কারণে এবারের নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি তেমন নেই; নেই উত্তাপ।

আজকের ভোটে ইতোমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় একক প্রার্থীরা নির্বাচিত হওয়ায় ১৩ উপজেলা ভোট হচ্ছে না। এর মধ্যে পাবনা সদর, ফরিদপুর সদর, নওগাঁ সদর, চট্টগ্রামের মিরসরাই ও রাউজান এবং নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় কোনো পদেই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী নেই, ফলে ভোট করারও প্রয়োজন হচ্ছে না। এছাড়া ৬ উপজেলার ভোট পিছিয়েছে এবং গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত রয়েছে।
আজ যেখানে যেখানে ভোট

আজ সোমবার দ্বিতীয় ধাপে রংপুর বিভাগের ঠাকুরগাঁও, রংপুর, গাইবান্ধা ও দিনাজপুর জেলার সব উপজেলা, রাজশাহী বিভাগের বগুড়া, সদর উপজেলা ছাড়া নওগাঁর সব উপজেলা ও পাবনা জেলার সদর ছাড়া সব উপজেলায় ভোট হচ্ছে। এছাড়া সিলেট বিভাগের সিলেট ও মৌলভীবাজারের সব উপজেলা এবং ফরিদপুর জেলার সদর ছাড়া সব উপজেলায় ভোট গ্রহণ চলছে।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম বিভাগের উত্তর চট্টগ্রামের সব উপজেলা (সীতাকুণ্ড, সন্দ্বীপ, রাঙ্গুনিয়া, ফটিকছড়ি ও হাটহাজারী), রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলার সব উপজেলা এবং কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় ভোট গ্রহণ চলছে।