নিজস্ব প্রতিবেদক : চুয়াডাঙ্গার কৃতি সন্তান ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের স্বত্বাধিকারী, বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিআইপি দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় আবারও ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই এর পরিচালক নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

দিলীপ কুমার আগরওয়ালা

অবশ্য ২০১৯-২০২০ মেয়াদে পদের অতিরিক্ত কোনো প্রার্থী না থাকায় সকল পরিচালকরাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। এই নির্বাচনে সোমবার ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন।

সে হিসেবে এফবিসিসিআর পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে আগামী ২৭ এপ্রিল ভোটগ্রহণের দিন ঠিক থাকলেও ভোটের আর প্রয়োজন পড়ছে না।

নির্বাচন সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, চেম্বার গ্রুপ ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ২১টি করে মোট ৪২টি পদের জন্য মনোনয়নপত্রও জমা পড়েছে ৪২টি।

চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন থেকে নির্বাচনের বাইরে ১৫ জন করে ৩০ জন প্রতিনিধি নিয়ে এবার ৭২ সদস্যের পর্ষদ গঠন হবে।

এখন তাদের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ভেরিফিকেশন চলছে। সব প্রক্রিয়া শেষ আগামী ৪ এপ্রিল পরিচালকদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। তারপরই সভাপতি নির্বাচন।

আর এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এফবিসিসিআইর সভাপতি হতে চলেছেন শেখ ফজলে ফাহিম। তিনি বর্তমানে জ্যেষ্ঠ সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

গত রোববার ‘সম্মিলিত ব্যবসায়ী পরিষদের’ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেন প্যানেলর দলনেতা শেখ ফাহিম। সেই প্যানেলের সব সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন বলে আগামী দুই বছরের জন্য তার সভাপতি হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এবার সভাপতি নির্বাচিত হবেন চেম্বার গ্রুপ থেকে। সহ সভাপতিও নির্বাচিত হবেন একই গ্রুপ থেকে। আর অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ থেকে নির্বাচিত হবেন জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি।

পরিচালক হচ্ছেন যারা

চেম্বার গ্রুপ: শেখ ফজলে ফাহিম, হাসিনা নেওয়াজ, মাসুদুর রহমান মিলন, আজিজুল হক, দিলীপ কুমার আগরওয়ালা, মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, মোহাম্মদ আনোয়ার সাদাত সরকার, মো. রেজাউল করিম রেজনু, গাজী গোলাম আশরিয়া, তাবারাকুল তোসাদ্দেক হোসাইন খান টিটো, মো. কহিনুর ইসলাম, প্রবীর কুমার সাহা, মো. আতাউর রহমান ভুঁইয়া, মোহাম্মদ বজলুর রহমান, মোহাম্মদ রিয়াদ আলী, মো. হাসানুজ্জামান, হুমায়ুন রশিদ খান পাঠান, এ এইচ আহমেদ জামাল, শারিতা মিল্লাত, সুজীব রঞ্জন দাস ও একেএম শাহেদ রেজা।

অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ: মুনতাকিম আশরাফ, খন্দকার রুহুল আমিন, আবু মোতালেব, মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ, মো. শফিকুল ইসলাম ভরসা, শমী কায়সার, রাশেদুল হোসাইন চৌধুরী রনি, মো. হাবিব উল্লাহ ডন, শাফকুয়াত হায়দার, হেলেনা জাহাঙ্গীর, আমজাদ হুসাইন, নিজাম উদ্দিন রাজেশ, এস এম জাহাঙ্গীর হোসাইন, মো. আবুল আয়েস খান, আবু নাসের, খন্দকার মইনুর রহমান জুয়েল, হাফেজ হারুন অর রশিদ, আবদুল হক, মেহেদী আলী, মো. মুনির হোসাইন ও কাজী শোয়েব রশিদ।