নিজস্ব প্রতিবেদক : ২৫ মার্চ। ঘন তমসাচ্ছন্ন এক রাত নেমে এসেছিল এ ভূখণ্ডে। মর্মন্তুদ সেই রাতের স্মরণে এক মিনিটের জন্য আঁধার হয়েছিল পুরো দেশ। আঁধারবিনাশী চেতনার আলোয় দৃপ্ত স্তব্ধতার এ আয়োজন ছিল একাত্তরের সেই কালরাত স্মরণে। সোমবার রাত ৯টা থেকে ৯টা এক মিনিট দেশের অনেক স্থানেই আলো জ্বলেনি। ১৯৭১ সালে এই রাতে অপারেশন সার্চলাইটের অতর্কিত হত্যাযজ্ঞে হতচকিত দেশের ঘরে ঘরে যে আলো নিভিয়ে দিতে হয়েছিল, তারই স্মরণে দ্বিতীয়বারের মতো ছিল এ প্রতীকী আয়োজন। আয়োজন ছিল বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাজধানী চুয়াডাঙ্গাতেও।

আর তাইতো চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক গোপাল কৃষ্ণ দাস এই ছবিগুলো সংযুক্ত করে তার ফেসবুক পেইজে আকুল করা আবেদরেন লিখেছেন, ‘আমাদের শিরায় শিরায় ধমনীতে বহমান অসংখ্য সূর্য সন্তানের রক্ত। যারা নিহত হয়েছিলেন ২৫ মার্চের ভয়াল কালোরাত্রিতে। আমাদের হাতে দিয়ে গিয়েছেন স্বাধীনতার আলোকবর্তিকা, তাদের স্মরণে আগুনের পরশমনি।