বিখ্যাত রক শিল্পী জিম মরিসন এবং বাংলাদেশের বিখ্যাত কবি ও কথাসাহিত্যিক আলাউদ্দিন আল আজাদের মৃত্যুবার্ষিক আজ, ৩জুলাই! জিম মরিসনের জন্ম ফ্লোরিডার মেলবোর্নে। আলাউদ্দিন আল আজাদ জন্মেছেন বাংলাদেশের নরসিংদীতে। একজন বাংলা ভাষার কবি ও কথা সাহিত্যিক আরেকজন পৃথিবী বিখ্যাত রক মিউজিশিয়ান।
বিখ্যাত শিল্প চিরদিনই ব্যক্তির চিন্তাকে পৌঁছে দিয়েছে সমষ্টির কাছে! আর শিল্পী অমর হয়েছেন তাঁর চিন্তার উচ্চতায়। এই চিন্তা একটা দিকে শিল্পে মিলিত হলেও পৃথিবীতে প্রত্যেকজন শিল্পীই অন্যের তুলনায় ব্যতিক্রম-আলাদা। এই ব্যতিক্রম্যতাও শিল্পীর চিন্তাকেই মূল ধরে হাঁটে।
জিম মরিসন বিখ্যাত দ্য ডোরসব্যান্ডের ভোকালিস্ট এবং রক সঙ্গীত ইতিহাসের কিংবদন্তী, যিনি সামরিক অফিসার বাবার ইচ্ছাকে পাত্তা না দিয়ে হয়েছেন রক মিউজিশিয়ান। গড়ে তুলেছেন ব্যান্ড। লিখেছেন কবিতা। পড়তেন কাফকা, নিৎসে, অ্যালেন গিন্সবার্গ প্রভৃতি। ছিলেন সে যুগের বিশ্ব প্রেমিক। ভীষণ রোমান্টিক! যেভাবে খুশি কাটিয়েছেন জীবন। নেশা করতেন মাত্রাহীন। একদিন কাউকে কিছু না বলে বাথটাবে শুয়েই গেলেন মরে।
জন্মালেন ১৯৪৩সালের ৮ ডিসেম্বর, মরে গেলেন ১৯৭১ সালের ৩জুলাই! কবিতা, উদ্দামতা আর দ্রোহ যার চোখে মুখে জ্বলজ্বল করতো তিনি জিম মরিসন। আর এই উজ্জীবন স্পষ্ট হয়ে উঠতো আলাউদ্দিন আল আজাদের কবিতা-গল্প-উপন্যাসে! আজাদ একজন কমিউনিস্ট সমর্থক লেখক ছিলেন! বাংলা ভাষার সম্মান এবং বাঙালি জাতির স্বাধীনতা তাঁর সাহিত্যের একটা বড় জায়গা দখলকরে আছে। মানবতা এবং মানুষের সম্মানের জন্য, পুঁজিবাদ থেকে গণমানুষকে রক্ষার জন্য চলেছে তাঁর কলম আমৃত্যু! তিনি জন্মেছেন ১৯৩২সালের ৬মে, এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২০০৯সালের ৩জুলাই।
দুজন মানুষের চিন্তা এবং জীবন যাপন একেবারে আলাদা না হলেও একজন সাহিত্যিক হিসেবে আজাদকে যেমন জিমের সাথে মেলানো যায়না, তেমনি জিমের জীবন যাপন আজাদের পক্ষে অসম্ভব!
জিমের জিমের ১১বছর বড় আ লাউদ্দিন আল আজাদ বেঁচেও ছিলেন জিমের চেয়ে বেশিদিন। তিনি হয়তো শুনতেনও জিম মরিসনের গান! তাছাড়া জিমের কবিতাও পৃথিবী বিখ্যাত। পড়েছেনও হয়তো আজাদ জিমের কবিতা! কিন্তু তিনি কি জানতেন যে দিনে জিম মারা গেছেন সেই দিনেই তিন মারা যাবেন

উজ্জীবন স্পষ্ট হয়ে উঠতো আলাউদ্দিন আল আজাদের কবিতা-গল্প-উপন্যাসে! আজাদ একজন কমিউনিস্ট সমর্থক লেখক ছিলেন! বাংলা ভাষার সম্মান এবং বাঙালি জাতির স্বাধীনতা তাঁর সাহিত্যের একটা বড় জায়গা দখলকরে আছে। মানবতা এবং মানুষের সম্মানের জন্য, পুঁজিবাদ থেকে গণমানুষকে রক্ষার জন্য চলেছে তাঁর কলম আমৃত্যু! তিনি জন্মেছেন ১৯৩২সালের ৬মে, এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২০০৯সালের ৩জুলাই।
দুজন মানুষের চিন্তা এবং জীবন যাপন একেবারে আলাদা না হলেও একজন সাহিত্যিক হিসেবে আজাদকে যেমন জিমের সাথে মেলানো যায়না, তেমনি জিমের জীবন যাপন আজাদের পক্ষে অসম্ভব!
জিমের জিমের ১১বছর বড় আ লাউদ্দিন আল আজাদ বেঁচেও ছিলেন জিমের চেয়ে বেশিদিন। তিনি হয়তো শুনতেনও জিম মরিসনের গান! তাছাড়া জিমের কবিতাও পৃথিবী বিখ্যাত। পড়েছেনও হয়তো আজাদ জিমের কবিতা! কিন্তু তিনি কি জানতেন যে দিনে জিম মারা গেছেন সেই দিনেই তিন মারা যাবেন