নিজস্ব প্রতিবেদক : আলোচনার প্রস্তাব দিয়ে বৈধ ও লাইসেন্সধারী রিকশাচালক ও মালিকদের নগর ভবনে চায়ের দাওয়াত দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে নগরীর সুশৃঙ্খল গণপরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা বিনিময় শীর্ষক এক কর্মশালায় তিনি এ আহ্বান জানান।

মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, সবাই মিলে বসে আলোচনা করে যেকোনো সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। তাই আমি লাইসেন্সধারী রিকশাচালক-মালিকদের নগর ভবনে চায়ের দাওয়াত দিচ্ছি। তাদের আলোচনায় বসার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমরা আলোচনা করে এ সমস্যার সমাধান করতে পারি।

তিনি আরও বলেন, কুড়িল, বিশ্ব রোডসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় তারা আন্দোলন করেছে। তাদের সঙ্গে রিকশার মালিক এবং কিছু অচেনা মুখও দেখা গেছে। রাস্তায় রিকশা বন্ধ করা হয়েছিল যানজট কমানোর জন্য। কিন্তু তারা রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করায় পুরো শহর স্থবির হয়ে পড়েছে। এটা খুবই দুঃখজনক।

এদিকে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক থেকে রিকশা তুলে দেওয়ার প্রতিবাদে রাজধানীর মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডাসহ বেশ কয়েকটি পয়েন্টে সড়ক অবরোধ করেছেন রিকশাচালকরা।

মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজধানীর কুড়িল-রামপুরা-মালিবাগ সড়কের বিভিন্ন অংশ অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন রিকশাচালকরা। এর ফলে প্রগতি সরণি থমকে আছে। মালিবাগ রামপুরা হয়ে নতুন বাজার পর্যন্ত সড়কে যানবাহন স্থবির হয়ে আছে। বিপরীত দিকের সড়ক ফাঁকা থাকয় সেখান দিয়ে সাধারণ মানুষ পায়ে হেঁটে চলাচল করছেন।

কুড়িল বিশ্বরোড থেকে কোনো গাড়ি এমনকি মোটরসাইকেলও ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। ফলে সকাল থেকেই এ সড়ক ব্যবহার করে কর্মক্ষেত্রগামী সাধারণ মানুষ পড়েছেন চরম ভোগান্তিতে।