নিজস্ব প্রতিবেদক : মোস্তাফিজ বিয়ে করেছেন গত মার্চে। কাল সাতক্ষীরার তেঁতুলিয়া গ্রামে হচ্ছে তাঁর বউভাত অনুষ্ঠান।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ বড় সাফল্য না পেলেও মোস্তাফিজুর রহমানের প্রাপ্তি মন্দ নয়। ২০ উইকেট নিয়ে তিনিই দলের সেরা বোলার। বিশ্বমঞ্চে একটির পর একটি উইকেট পাওয়ার আনন্দ তো আছেই। তাঁর জীবনে আরেকটি আনন্দময় ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে কাল। কালই মোস্তাফিজের বউভাত।

গত ২২ মার্চ মামাতো বোন সামিয়া পারভীন শিমুকে বিয়ে করেছেন মোস্তাফিজ। ক্রিকেট নিয়ে ব্যস্ততা থাকায় আগেই জানিয়েছিলেন বউভাতের অনুষ্ঠানটা সারবেন বিশ্বকাপের পর। সে পরিকল্পনা অনুযায়ী শনিবার বউভাত অনুষ্ঠান হচ্ছে মোস্তাফিজ-সামিয়ার। নববধূর আগমন উপলক্ষে মোস্তাফিজের বাড়ির সাজানো হয়েছে রাজকীয় সাজে, আলোক ঝলমলে শোভা পাচ্ছে নান্দনিক রূপে।

মোস্তাফিজের বড় ভাই মাহফুজুর রহমান মিঠু জানান, মোস্তাফিজের বউভাত অনুষ্ঠানে প্রায় দুই হাজার অতিথি আমন্ত্রণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে নিমন্ত্রণের কাজ শেষ হয়েছে। বাড়ির সামনে তৈরি করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন বড় তোরণ। সেখান থেকে বাড়ির দরজা পর্যন্ত ঝকমক করছে বিদ্যুতের আলোয়। বর-কনের আসন সাজানো হচ্ছে ফুল আর রঙিন আলোর সংমিশ্রণে। গোটা বাড়ির নান্দনিকতা দেখে মুগ্ধ হতেই হবে। স্বাভাবিকভাবেই ক্রিকেট তারকা মোস্তাফিজের বিয়ে উপলক্ষে সাড়া পড়ে গেছে সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার তারালি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামে।

মোস্তাফিজের পারিবারিক সূত্রেই জানা গেল, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংসদ আ ফ ম রুহুল হক ছাড়াও স্থানীয় সুধীজনেরা থাকবেন অনুষ্ঠানে। তবে বাংলাদেশ দলের সব খেলোয়াড় থাকছেন না এ অনুষ্ঠানে। তাঁদের নিয়ে ঢাকায় আরেকটি জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করার পরিকল্পনা আছে মোস্তাফিজের। বাঁহাতি পেসারের নবপরিণীতা সামিয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মনোবিজ্ঞান বিভাগে অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।