নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের ঝুঁকিভাতা দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন জেলা প্রশাসকরা (ডিসি)। জেলা প্রশাসকদের জন্য জ্বালানি খরচের সীমাও তুলে দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন তারা। এ ছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের অধীনে সার্বক্ষণিক এক প্লাটুন পুলিশ ন্যস্তকরণসহ ৩৩৩টি প্রস্তাব করেছেন ৬৪ জেলার ডিসিরা। আগামীকাল রবিবার শুরু হতে যাওয়া পাঁচ দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক সম্মেলনে ৫৪টি মন্ত্রণালয় বা বিভাগের কাছে উত্থাপনের জন্য এসব প্রস্তাব মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে।

রবিবার সকাল ৯টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘শাপলা হলে’ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৯টি অধিবেশন, ২৪টি কার্য-অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে এবারের জেলা প্রশাসক সম্মেলনে। জানা গেছে, প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাদের জন্য ‘জনপ্রশাসন ব্যাংক’ নামে একটি ব্যাংক স্থাপনের প্রস্তাব করেছেন নোয়াখালীর ডিসি। তিনি বলেছেন, এতে কর্মকর্তাদের আর্থিক কার্যাবলি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে এবং আর্থিক নিরাপত্তা বাড়বে। তিনি উপজেলা পর্যায়ে এসি (ফাইন্যান্স) পদায়ন করারও প্রস্তাব দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এসি (ফাইন্যান্স) পদায়ন করা হলে উপজেলা পর্যায়ে যাবতীয় ব্যয়ে আরও স্বচ্ছতা বাড়বে। সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য বিশেষায়িত একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব করেছেন নরসিংদীর ডিসি।

তার মতে, বিশ্ববিদ্যালয়টি ‘সিভিল সার্ভিস কলেজ সিঙ্গাপুর’-এর আদলে স্থাপন করা যেতে পারে। এতে পাবলিক পলিসি, অর্থনীতি, ফিন্যান্স, সুশাসন, সোশ্যাল পলিসিসহ বিভিন্ন বিষয়ে উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ ও গবেষণার সুযোগ থাকবে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের জন্য স্থায়ী বেঞ্চ সহকারী নিয়োগ দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন ঢাকার জেলা প্রশাসক। প্রস্তাবের পক্ষে যুক্তি, মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য দক্ষ সাপোর্ট স্টাফ তৈরি হবে। মোবাইল কোর্ট সংক্রান্ত সাংগঠনিক কাঠামো শক্তিশালী হবে। রাঙামাটিতে সার্কিট হাউস নির্মাণের প্রস্তাব দিয়েছেন জেলাটির ডিসি।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার ক্ষেত্রে জব্দ মালামাল পরিবহন ও আনুষঙ্গিক খরচের জন্য বরাদ্দ দেওয়ার প্রস্তাবও এসেছে। মহাফেজখানার জন্য একটি নতুন ভবন নির্মাণের প্রস্তাব পাঠিয়েছেন বরিশালের ডিসি। তিনি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকদের জন্য বাসভবন নির্মাণেরও প্রস্তাব দিয়েছেন। জরুরি উদ্ধার কার্যক্রম, জাটকা বা মা ইলিশ নিধনবিরোধী অভিযান পরিচালনার জন্য স্পিডবোট বরাদ্দ দিতে প্রস্তাব করেছেন মুন্সীগঞ্জের ডিসি। বিভিন্ন দিবস পালনের জন্য জেলা প্রশাসকের অনুকূলে প্রতি জেলায় এক কোটি টাকা থোক বরাদ্দের প্রস্তাব করেছেন নারায়ণগঞ্জের ডিসি।

তিনি বলেছেন, জেলা প্রশাসন সরকারের নির্দেশনায় বিভিন্ন দিবসসহ রাষ্ট্রাচার পালন করে থাকে। এসব কাজে বরাদ্দ খুবই কম থাকে। ফলে স্থানীয় উদ্যোগে বিভিন্ন দিবস পালন করতে হয়। অনেক সময় স্থানীয় উদ্যোগে অর্থ সংস্থান কষ্টকর হয়ে পড়ে। আগ্নেয়াস্ত্র লাইসেন্স বহি যুগোপযোগী করার প্রস্তাব দিয়েছেন বরগুনা ও পটুয়াখালীর ডিসি। তাদেব বক্তব্য, বর্তমানে যে বহি প্রচলিত আছে তা ব্রিটিশ আমলের; যার বেশিরভাগই অপ্রয়োজনীয়।

মাত্র ৪-৫ বছর ব্যবহার ও নবায়নে জরাজীর্ণ হয়ে যায় এবং ভাঁজ করতে সমস্যা হয়। পাসপোর্ট আকারে করা হলে এক পৃষ্ঠায় নবায়ন ও অন্য পৃষ্ঠায় পুলিশি প্রতিপাদন, গুলি ক্রয় ও খরচের হিসাব লেখা যাবে। প্রতিটি বইয়ে ও পাতায় নিরাপত্তা প্রতীকসহ ক্রমিক নম্বর থাকলে লাইসেন্স জাল হওয়ার সুযোগ থাকবে না।