ডেস্ক রিপোর্ট: যখনই তার বিদায়ের চিঠি এসেছে তখনই জেলাবাসী তাদের প্রিয়জন হারানোর ব্যথায় কাতর। এবন্ধন কোনো রক্তের নয় এ বন্ধন একজন কর্মবীর আর ভালবাসার মানুষের বিদায়।

প্রিয়হারা বেদনার সেই বিগিউলের সুর ছড়িয়ে পড়েছে সমগ্র চুয়াডাঙ্গাবাসীর অন্তরে। হৃদয়ে রক্তক্ষরণের সেই বেদনা বিধুর অনুভ’তি আজ ছড়িয়ে পড়েছে জীবননগর থেকে আলমডাঙ্গা পর্যন্ত। সর্বত্র বিদায়ের দীর্ঘনিশ্বাস।

তারপরেও রবীন্দ্র নাথের মতো বলতে হচ্ছে কাহারে রাখিবি বেধে ওই ছোট্ট দুটি হাতে। কোনো শক্তি নেই। তাইতো বলতে হচ্ছে তাকে ফেরানো গেলোনা কিছুতেই।


চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক (ডিসি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার। গতকাল রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এই নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাসকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব পদে বদলি করা হয়েছে।

নতুন জেলা প্রশাসক হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপসচিব মো. নজরুল ইসলাম সরকার।


গোপাল চন্দ্র দাস ডিসি হিসাবে চুয়াডাঙ্গায় যোগদানের পর তিনি তার কাজের মাধ্যমে এলাকার মানুষের ভালবাসা কুড়িয়েছেন। তার চিন্তা ভাবনায় ছিলো অবহেলিত চুয়াডাঙ্গাকে এটি স্বপ্নের জেলায় রুপাšÍিরত করা।

সরকারের ডিজিটাল কর্মসূচী বাস্তবায়নে তিনি নিরলস ভাবে কাজ করেছেন। বিশেষ করে চুয়াডাঙ্গার মানুষের সাথে তার নিবিড় সর্ম্পক তাকে এলাকাবাসীর কাছের মানুষে পরিণত করেছে। তিনি নিজের কাজ এবং কর্মনিষ্ঠা দিয়ে জেলাবাসীর মনে স্থায়ী আসন গড়ে নিয়েছেন।

আমার গ্রাম আমার শহর এই মৌলবানীকে তিনি অন্তরে লালন করতে জেলার দোয়ারপাড়া নামক এক প্রত্যন্ত গ্রামকে আলো ঝলমল করে তুলেছেন। এছাড়া কামলার অভাবে গরীবের ক্ষেতের পাকা ধান নষ্ঠ হয়ে যাওয়া ঠেকাতে নিজে কাচি-কাস্তে নিয়ে মাঠে নেমে সে ধান কেটে দিয়েছেন।

এসময় তিনি তার পদ এবং পদবীকে তোয়াক্কা করেননি। পরিস্কার পরিছন্নতা বিষয়ে তিনি সজাগ থেকেছেন। নিজ হাতে এসব ময়লা আর্বজনা ছাফ করেছেন। তার ভাবনায় চুয়াডাঙ্গা যেভাবে এসেছে তার দৃষ্টান্ত বিরল।


অন্যদিকে খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসককে বদলি করা হয়েছে। নতুন নিয়োগ পেয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস। সাবেক জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলামকে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।


এদিকে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের একান্ত সচিব মো. এনামুল হককে জামালপুরের নতুন জেলা প্রশাসক (ডিসি) হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই দিন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের একান্ত সচিব মো. এনামুল হককে (পরিচিতি নম্বর ১৫০২৫) জামালপুরের নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এবং ডিসি আহমেদ কবীরকে (পরিচিতি নম্বর ৬৫০২) ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করে ঢাকায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে।