নিজস্ব প্রতিবেদক : উন্নয়নশীল আটটি মুসলিম দেশের জোট ডি-৮ (ডেভলপিং-৮) এর দশম সম্মেলন আগামী বছর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা সফরে আসা জোটের মহাসচিব জাফর কু শারি বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন ডি-৮ এর আগামী সম্মেলন এপ্রিলের তৃতীয় সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে বাংলাদেশ ২০২০-২০২১ মেয়াদের জন্য চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাবে।”

একই সময়ে বাংলাদেশ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীও উদযাপন করবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

ডি-৮ এর মহাসচিব জাফর জোটের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদার করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

তিনি আগামী সম্মেলনে নতুন পরিকল্পনা ও উদ্যোগ গ্রহণ করার কথাও বলেন।
নিজেদের মধ্যে আলোচনায় সদস্য দেশগুলোর অভিজ্ঞতা বিনিময়ের পাশাপাশি পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধির ওপরও জোর দেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও ডি-৮।

জাফর কু শারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করে বলেন, বাংলাদেশ বিভিন্ন দেশের জন্য উন্নয়নের একটি মডেল হতে পারে।

এ সময় তিনি শেখ হাসিনার কাছে জোটভুক্ত দেশগুলোর জন্য একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল চান।

ইহসানুল করিম বলেন, “জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে বলেছেন, সেটা দেওয়া হবে। বাংলাদেশে এরই মধ্যে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল করা হচ্ছে। সেখান থেকে ডি-৮ এর দেশগুলোর জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হবে।”

নতুন পরিকল্পনা প্রণয়নের মধ্যে দিয়ে ডি-৮ কে এগিয়ে নিতে নেওয়ায় মহাসচিবকে ধন্যবাদও জানান শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমানও এসময় উপস্থিত ছিলেন।

ডি-৮ ভুক্ত আটটি দেশ হল- বাংলাদেশ, মিশর, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান এবং তুরস্ক।

১৯৯৭ সালে গঠিত এই জোটের সদর দপ্তর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে।