কয়রা প্রতিনিধিঃ কয়রা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় উপজেলার উত্তর বেদকাশি ইউনিয়নের গাজীপাড়া, পুটিঘেরী, হাজতখালি ও কাশির হাটখোলা এলাকার ভগ্ন ভেড়িবাঁধ পরিদর্শন করেন। ঘূর্নিঝড় আম্ফানে উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের ভেড়িবাঁধ ভেঙে গেলে স্বেচ্ছাশ্রমে ৩টি ইউনিয়নের নদীভাঙনে রিংবঁাধ দিয়ে আটকানো সম্ভব হলেও উপরিল্লিখিত এলাকা গুলোর ভগ্ন ভেড়িবঁাধ এখনও পর্যন্ত আটকানো সম্ভব হয়নি। যেকারনে ইউনিয়নটির অধিকাংশ এলাকা এখনও নদীর লোনা পানিতে ডুবে আছে। ভগ্ন ভেড়িবঁাধ পরিদর্শনের সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ জাকির হোসেন, সেকশন কর্মকর্তা মোঃ মশিউল আবেদীন, উত্তর বেদকাশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গনেশ চন্দ্র মণ্ডল, আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুর রহমান সরদার, শফিকুল ইসলাম সরদার, আবু ঈসা গাজী, কয়রা উন্নয়ন সংগ্রাম কমিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ ইমতিয়াজ উদ্দিন, সমাজ সেবক মাষ্টার মিহির কান্তি মণ্ডল, আকবর হোসেন, যুবলীগ নেতা মোঃ মাসুম বিল্যাহ, জাহাঙ্গীর হোসেন, বাবলু প্রমূখ। ভগ্ন এলাকা পরিদর্শনের সময় তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের সা থে উপস্থিত থেকে ভগ্ন ভেড়িবঁাধের দুরত্ব পরিমাপে সহযোগিতা করেন। এসময় তিনি নৌকাযোগে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসির খোঁজ-খবর নেন।