খোরশেদ  আলম , সাভার  প্রতিনিধিঃ সাভারে নিজ বাড়ির চিলকোঠায় দেশি মদ তৈরি ও ছাদবাগানে গাঁজা চাষ করে বিক্রির অভিযোগে চিহ্নিত এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এসময় জব্দ করা হয়েছে ১ হাজার লিটার দেশি মদ ও ছাদবাগানে চাষ করা পাঁচটি তাজা গাঁজার গাছ। শনিবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-৪ মিরপুর-১ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সাজেদুল ইসলাম সজল এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকের এই তথ্য নিশ্চিত করেন।
অপর একটি পৃথক অভিযানে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা হতে ১ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবাসহ আরো তিন মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তারের বিষয়টিও প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে শনিবার (৪ জুলাই) ভোরে সাভারের রাজাশন থেকে এক জন ও রাজধানীর দারুস সালাম এলাকা থেকে আরো তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

সাভারে গাঁজা ও মদসহ গ্রেপ্তার ফ্রান্সিস গোমেজ (৬০) পৌর এলাকার রাজাশনের বাসিন্দা। এছাড়া দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কক্সবাজার জেলার আব্দুল বাসেদ (২৪), চট্টগ্রাম জেলার কুতুবুল আলম (২৫) ও খুলনা জেলার ৩। ববি (২০)।

র‌্যাব জানায়, শনিবার ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাভারের রাজাশন এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল। পরে ফ্রান্সিস গোমেজ নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর ছাদবাগানে কৌশলে চাষ করা ৫টি তাজা গাঁজা গাছ জব্দ করা হয়। এসময় একই বাড়ির চিলকোঠায় ১ হাজার লিটার দেশি মদ জব্দসহ মাদক ব্যবসায়ী ফ্রান্সিস গোমেজকে আটক করা হয়।

অপরদিকে পৃথক আরেকটি অভিযানে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে ১ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবাসহ আরো তিন মাদক কারবারিকে আটক করে র‌্যাব।

র‌্যাব-৪ মিরপুর-১ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সাজেদুল ইসলাম সজল জানান, সাভারের রাজাশন এলাকায় দীর্ঘ ১৫ বছরের বেশী সময় ধরে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল ফ্রান্সিস গোমেজ ওই মাদক ব্যবসায়ী। এমনকি নিজ বসতবাড়ির ছাদে গাঁজা চাষ ও বাসার চিলকোঠায় বাংলা মদ তৈরী করে এসব সাভারসহ মিরপুর ও আশপাশ এলাকায় বিক্রয় করত সে। এছাড়া পৃথক আরেকটি অভিযানে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে ১ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবাসহ চিহ্নিত তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

আটক মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সাভার মডেল থানা ও দারুস সালাম থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।