আব্দুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টারঃ উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অতি বর্ষণে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়ে দ্বিতীয় দফায় বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্হিতি দিন দিন আরও অবনতি হচ্ছে। এতে জেলার বন্যা কবলতি বেশ কয়েকটি উপজেলা কাজিপুর,সিরাজগঞ্জ সদর,বেলকুচি, চৌহালী ও শাহজাদপুরের নদী অববাহিকার নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চলের বন্যা কবলিত ৩৩ ইউনিয়নের ২১৬ টি গ্রামের ৩৪ হাজরা ৬৮৪টি পরিবারের ১ লাখ ৬০  হাজার বানভাসি পানিবন্দি মানুষেরা খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি, জ্বালানি, শিশু খাদ্য ও গো খাদ্যের সংকট সহ নানা দুর্ভোগে মানবতার জীবন-যাপন করছে। ভাঙনো আতংকে নির্ঘুম রাত পোহাচ্ছে যমুনা নদীতীরবর্তী মানুষেরা। এর মধ্যেই  নদী ভাঙনে শতাধিক পরিবারের ঘর বাড়ি,বসতভিটা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে।