মোস্তাফিজুর রহমান লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ   লালমনিরহাটে পানি কমতে শুরু করায় ভাঙ্গনের শঙ্কায় তিস্তা তীরবর্তী জনপথের লোকজন। লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার তিস্তা নদী তীরবর্তী সানিয়াজান ইউনিয়নের পাক শেখ সুন্দর মধ্যপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি তিস্তার ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। বুধবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে এমনেই দৃশ্য নজরে আসে।স্থানীয়রা জানান, ওই বিদ্যালয়টি চরাঞ্চলের শিশুদের পাঠদানের একমাত্র প্রতিষ্ঠান। জরুরীভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে বিদ্যালয়টি যে কোন মুহূর্তে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশংকা করা হচ্ছে। ওই বিদ্যালয়টি বিলীন হয়ে গেলে চরাঞ্চলের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা হারাবে পাঠদানের সুযোগ। বিদ্যালয়টি রায় কর্তৃপক্ষের কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া জরুরী। গত কয়েক বছরের বন্যায় মসজিদ, বিদ্যালয়সহ অসংখ্য স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। কয়েক হাজার একর আবাদি জমিও গিলেছে সর্বগ্রাসী এই তিস্তা নদী। কিন্তু আজো ভাঙ্গন রোধে নেয়া হয়নি সঠিক কোন পদক্ষেপ।বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ফজলুল হক বলেন, জরুরীভাবে বালির বস্তা দিয়ে ভাঙ্গন রোধে ব্যবস্থা নিলে রক্ষা পেতে পারে বিদ্যালয়টি।বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া বলেন, এই স্কুলটি চরাঞ্চলের কোমল শিশু শিক্ষার্থীদের পাঠদানের একমাত্র প্রতিষ্ঠান। তাই প্রতিষ্ঠানটি রক্ষায় সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, পাক শেখ সুন্দর মধ্যপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি তিস্তার ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। বিষয়টি আইন শৃঙ্খলা সভায় উত্থাপন করা হয়েছে। ওই বিদ্যালয় সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।