সাভার প্রতিনিধিঃ সাভারের আশুলিয়ায় ইয়াবাসহ চিহ্নিত দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (১৮ জুলাই) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে আশুলিয়ার কাঠগড়া দোকাটি এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাঁদেরকে আটক করা হয়। এ সময় মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ১১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
আটককৃতরা হলো- নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার বাহাদুলি গ্রামের মো. আবুল হোসেনের ছেলে মো. নূর আলম (৪৫) এবং বাগেরহাট জেলার চিতলমারী থানার মছন্দপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে মো. রফিকুল ইসলাম (৪০)। এছাড়া অভিযান কালে পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে আশুলিয়ার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী কাঠগড়া দোকাটি এলাকার হাজী আব্দুস সাত্তারের ছেলে আল মামুন সিকদার কুদ্দুস (৩৫) পালিয়ে যায়। আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তাঁদেরকে বেশ কয়েকবার ইয়াবাসহ আটক করেছে পুলিশ। আটকের পর কিছুদিন কারাবাস করে জামিনে মুক্ত হয়ে তারা পুনরায় ইয়াবার ব্যবসা শুরু করেন।
অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ জানান, শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই সুদীপ কুমার গোপ, এসআই আসওয়াদুর রহমান ও এএসআই মাজহারুল হককে সঙ্গে নিয়ে আশুলিয়ার কাঠগড়া দোকাটি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তিনজন পালানোর চেষ্টাকালে পুলিশ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করতে সক্ষম হয়। তবে এসময় অপর এক ব্যক্তি এসআই আসওয়াদুর রহমানকে ধাক্কা দিয়ে দৌড়ে জঙ্গলে পালিয়ে যায়। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তির নাম আল মামুন সিকদার কুদ্দুস। সে মূলত কাঠগড়া এলাকার ইয়াবার ডিলার ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। পরে আটক নূর আলমের দেহ তল্লাশি চালিয়ে তার পরিহিত লুঙ্গির বাম কুচরায় রক্ষিত ৬০ পিস ইয়াবা এবং রফিকুল ইসলামের পরিহিত লুঙ্গির ডান কুচরায় স্বচ্ছ পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় রক্ষিত ৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ৩৩ হাজার টাকা বলেও জানায় পুলিশ। 
বিষয়টি নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু জানান, এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেইসাথে পলাতক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।