মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু,     নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের  উপদেষ্টা, ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সফল মেম্বার, আওয়ামীলীগের  দুর্দিনের নিবেদিত প্রাণ, ‘ক্যামরু তঞ্চঙ্গ্যা (৭৫) আর নেই। রবিবার (২৬ জুলাই) ১ টা ২৮ মিনিটের সময় নিজ বাসভবনে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ ছেলে ২ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন রেখে যান। তার মৃত্যুর খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুরো নাইক্ষ্যংছড়িতে নেমে আসে শোকের ছায়া। তাকে একনজর দেখতে ছুটে যান নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার জনপ্রিয় চেয়ারম্যান  অধ্যাপক মোঃ শফিউল্লাহ। এসময় তিনি মরহুমের পরিবারের খোঁজ কবর নেন এবং অর্থ সহায়তা প্রধান করেন। পরিবারের সূত্রে জানা যায়  সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুরে তারসৎকার করার কথা রয়েছে। উপজেলার প্রবিণ এ নেতার  মৃত্যুতে সৎগতি কামনা করে গভীর শোক প্রকাশ ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দেন পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান  অধ্যাপক মোঃ শফিউল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক ইমরান মেম্বার, সহ-সভাপতি তসলিম ইকবাল চৌধুরী,দোছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাবিবউল্লাহ, বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান আলম কোম্পানি, সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলি হোসেন মেম্বার, সদর যুবলীগ সভাপতি ফাহিম ইকবাল চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বদুরুল্লাহ বিদু,মুমিনুল আলম মুমু সহ আওয়ামীলীগের অংঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা।