রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি   ঃ    মহিপুরের
রাবনাবাদ নদীর মোহনা সংলগ্ন আশাখালী পয়েন্টে ট্রলারের পাখায় দড়ি পেঁচিয়ে
নদীতে ডুবে নিখোঁজ জেলে শাওন শেখের (১৭) লাশ  উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজ
হওয়ার ২৪ ঘন্টা পর শুক্রবার তার লাশ ভেসে ওঠলে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে
পুুুুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে  লাশ উদ্ধার করে। নিহত শাওন ফরিদপুরের
জেলার সালথা উপজেলার মীরকান্দি গ্রামের ৯ নং ওয়ার্ডের জাফর শেখের ছেলে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ধুলাসার ইউনিয়নের
জাকির বিশ্বাসের ট্রলারে জেলে কিশোর শাওন রাবনাবাদ মোহনার আশাখালী
পয়েন্টের দক্ষিণ পাড়ে  হঠাৎ বাতাসে তাদের  ট্রলারটির নোঙর ছুটে গেলে শাওন
ট্রলার থেকে নদীতে নেমে দড়ি টেনে নিজেদের  ট্রলারটিকে পাসে থাকা
ট্রলারের সাথে বাধঁতে চেয়েছিল। এ সময় ইলিশ বোঝাই অপর একটি ট্রলার ওই
স্থান থেকে দ্রুত চালিয়ে যাচ্ছিল। এ  ট্রলারটির পাখার সাথে জাকির
বিশ্বাসের ট্রলারের দড়ি আটকে যায়। ঐ দড়ি শাওনের মাজায় বাধা ছিল। শাওন ওই
দড়ির সাথে পেঁচিয়ে ডুবে নিখোঁজ  হয়। নিখোঁজের ২৪ ঘন্টা পর শুক্রবার তার
লাশ ভেসে ওঠলে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুুুুলিশে খবর দেয়। এস আই সাইদুর
রহমান জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মাজায় দড়ি বাধা অবস্থায়ায়  লাশ উদ্ধার
করা হয়।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মনিরুজ্জামান জানান, উদ্ধারকৃত
জেলে শাওনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং
থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।