চলতি মৌসুমে যেন সেমিফাইনাল রোগে পেয়েছে ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। একই মৌসুমে পরপর তিনটি টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিলো তারা। লিগ কাপ ও এফএ কাপের পর সবশেষ উয়েফা ইউরোপা লিগেও শেষ চার থেকে ছিটকে গেছে ওলে গানার সুলশারের দল।

রবিবার (১৭ আগস্ট) রাতে স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে গিয়েও শেষপর্যন্ত ১-২ গোলে হেরে গেছে রেড ডেভিলরা। ইউরোপায় নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে ফের ফাইনালে উঠে গেছে সেভিয়া। দ্বিতীয় সেমিতে ইন্টার মিলান ও শাখতার দোনেৎস্কের মধ্যে জয়ী দলের বিপক্ষে ফাইনাল খেলবে স্প্যানিশ ক্লাবটি।

প্রথম সেমিফাইনালে ম্যাচের মাত্র ৯ মিনিটের সময় পেনাল্টি থেকে ম্যান ইউকে এগিয়ে দিয়েছিলেন দলের পর্তুগিজ তারকা ব্রুনো ফার্নান্দেজ। ডি-বক্সের মধ্যে ফাউলের শিকার হন মার্কস র‍্যাশফোর্ড। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। চলতি মৌসুমে এটি ম্যান ইউর ২২তম পেনাল্টি।

শুরুতে এগিয়ে যাওয়ার স্বস্তি বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি ইংলিশ ক্লাবটি। ম্যাচের ২৬ মিনিটেই সমতা ফেরান সেভিয়ার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সুসো। ফের লিড নেয়ার জন্য চেষ্টার কমতি রাখেনি ম্যান ইউ। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে-পরে অতিমানবীয় কিছু সেভ দেন সেভিয়া গোলরক্ষক। যে কারণে লিড নিতে পারেনি রেড ডেভিলরা।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে জয়সূচক গোলটি ঠিকই আদায় করে নেয় সেভিয়া। ম্যান ইউর একের পর এক আক্রমণের ভিড়ে কাজের কাজটি করে ফেলেন সেভিয়ার ডাচ ফরোয়ার্ড লুক ডি ইয়ং। ম্যাচের ৭৮ মিনিটে হেসুস নাভাসের ক্রস থেকে গোলবারের খুব কাছ থেকে দলকে ফাইনালে তোলা গোলটি করেন এ তরুণ ফরোয়ার্ড।