খোরশেদ আলম,  সাভার  প্রতিনিধিঃ আশুলিয়া থানা দিন  পাথালিয়া ইউনিয়ন  একটি গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন এখানে  শিল্প কলকারখানা ও শ্রমিকরা বসবাসরত ব্যস্ততম এলাকা। শিল্পাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা হওয়ায় পাথালিয়া ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ডের তুলনামূলক জনসংখ্যা অনেক বেশি তাই এলাকাবাসী মনে করেন  শফিউল আলম  সোহাগের  মত  মেম্বার দরকার বলে জানান ৩নং ওয়ার্ডবাসী। এলাকাবাসী আরো বলেন সোহাগ মেম্বারের  আগে যে মেম্বার ছিল  তেমন কোন অবকাঠামোগত উন্নয়ন  কাজ দ‌ে‌খে‌নি,  বরং দীর্ঘ দিনযাবৎ দুর্ভিক্ষে জীবন-যাপন করে আসছি বলে জানান  এলাকাবাসী ও  এলাকার লক্ষ লক্ষ শ্রমিকসহ স্থানীয়রা।
 নাগারিক সুবিধার জন্য প্রয়োজনীয় ড্রেনেজ ব‌্যবস্থাসহ  রাস্তাও তেমন কিছু  ছ‌ি‌লোনা  লক্ষ লক্ষ শ্রমিকসহ স্থানীয়দ‌ের এই দু‌র্বিসহ জীবন ব‌্যবস্থা দ‌ে‌খে গত ইউপি নির্বাচ‌নে  ইউ‌পি সদস‌্য হি‌সেবে অংশ গ্রহন ক‌রে জয় লাভ ক‌রেন জনাব  মোঃ ‌ শফিউল আলম  সোহাগ । 
তি‌নি নির্বা‌চিত হওয়ার পর থেকে গত ৪  বছ‌রে এলাকায় রাস্তাসহ অব‌কাঠামোগত ব‌্যাপক উন্নয়ন কাজ করেছেন  সোহাগ নাম্বার। তাই এলাকাবাসী ম‌নে কর‌ছেন আগামী ইউ‌পি নির্বাচ‌নে পাথালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসাবে আমরা আবারো শফিউল আলম  সোহাগ কে আমাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করব ইনশাল্লাহ।  
বাংলাদেশ সরকারের বর্তমান মন্ত্রি সভার ত্রান ও দৃর্যোগ ব্যবস্থাপনার প্রতিমন্ত্রি ডা. এনামুর রহমান সারা বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোটে নির্বাচিত একজন সংসদ সদস্য। যার পিছনে ও দূঃসময়ে অতন্দ্র প্রহরীর মত ভূমিকা  পালন করেছেন বর্তমান পাথালিয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সম্মানিত মেম্বার জনাব মোঃ শফিউল আলম সোহাগ। পাথালিয়া ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ডে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ৩ নং ওয়ার্ডের ছোট-বড় যে সমস্ত রাস্তা ড্রেনেজ  ব্যবস্থা করেছেন  এলাকাবাসী বলেন সোহাগ মেম্বারের কোন তুলনা হয় না বলে জানান এলাকার  মুরুব্বি রা। 
পাথালিয়া ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ডের   ১ নাম্বার গলিতে স্থানীয় এক বাড়িওয়ালা রিপন মিয়া বলেন সোহাগ মেম্বার হওয়ার পর থেকে  রাস্তাঘাটের  অনেক উন্নয়নমূলক কাজ  করেছে তাতে আমরা   গর্বিত, তিনি বলেন সোহাগ  মেম্বার যদি এবারও মেম্বার প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ায় তাহলে আমরা আবারো এলাকাবাসী মিলে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করব বলে জানান।  এদিকে ৫  নং ওয়ার্ডের এক দিন মজুর  আব্দুল জলিল বলেন  ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শফিউল আলম  সোহাগ এর সার্বিক সহযোগিতা ছাড়া আমি চলতে পারি না, তার মতো মহত্ব মেম্বার আমি কখনোই দেখি নায়, করোনাভাইরাস এর সময় তার নিজস্ব অর্থায়নে থেকে গরীব দুঃখী মানুষেকে  অনেক কিছুই  দিয়েছে আমি তার কাছ থেকে চালডাল অনেক কিছু নিয়ে আমার ছেলে মেয়েকে খাওয়াইছি, যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না, বড় দুঃখের বিষয় হল আমি ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার এর কাছ থেকে কোনো সহযোগিতা পাই নাই ।
 এদিকে  ৩ নং ওয়ার্ডের আমতলা এলাকার সবুজ মিয়া বলেন সোহাগ ভালো ছেলে করোনার সময় গরিব মানুষকে অনেক কিছু দিয়েছে বলে জানান তিনি। এদিকে স্থানীয় ৩নং ওয়ার্ডের বাচ্চু হাওলাদার বলেন ৩নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে আমরা মানি শফিউল আলম সোহাগ মেম্বারকে অত্যন্ত ভাল একজন মানুষ কিছু না দিতে পারলেও যে একটা হাসি দিয়ে কথা বলে তাতেই আমরা খুশি

এদিকে শফিউল আলম সোহাগ ইউ‌পি সদ‌স্যের  দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে এলাকায় সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী, মাদক ও ভূমিদূস্যতাসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ দূর করতে কর্মীদের নিয়ে নিঃরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাই এই ওয়ার্ড বাসীর বিশ্বাস তারই পক্ষে সম্ভব সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী, মাদক ও ভ’মিদূস্যতাসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে রেখে পিছিয়ে পড়া মানুষদের ভাগ্যের দ্রুত উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব। ৩ ওয়ার্ড এগিয়ে এক দোকানে  বসা  ৬০ বছরের একজন মুরুব্বী বলেন কি জানতে চান আমার কাছে নাম জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন নাম বলতে হবে না, আপনার প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি, সোহাগ মেম্বারের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ৩নং ওয়ার্ডে সোহাগ মেম্বার ছাড়া বিকল্প কোন মেম্বার এখানে আমাদের দরকার নেই ছোট্ট একটি ছেলে মেম্বার অনেক কাজ করেছে আমরা তাঁর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এই ব্যাপারে কথালিয়া ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শফিউল আলম সোহাগ বলেন আগামীতে যদি আমাকে এলাকাবাসী ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে  আমি তাদের জন্য ৩ নং ওয়ার্ডের বাকি যে রাস্তাগুলোর কাজ রয়েছে সবগুলো রাস্তা ও ড্রেনের  ব্যবস্থা শেষ করে দিব, আর জনো নেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘড়ার যে লক্ষণ সেই লক্ষণ  পাথালিয়া ৩ নং ওয়ার্ডে দেখা যাবে, ডিজিটাল হিসেবে পরিণত করে দেখাই দিব বলে জানান