নাদিম আহমেদ অনিক, নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগরে সড়ক ও জনপদের (সওজ) জায়গা দখল করে স্থায়ী দোকান ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রশাসন নিবর থাকার কারণে স্থানীয়দের মাঝে এক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের প্রধান ফটকের সঙ্গে নওগাঁ-রাণীনগর-আত্রাই মহাসড়ক সংলগ্ন নিজের জায়গার সঙ্গে অবৈধ ভাবে সওজের জায়গা দখল করে ইট দিয়ে স্থায়ী দোকান ঘর নির্মাণ করেছেন পশ্চিম বালুভরা গ্রামের মৃত-ময়েন উদ্দিনের ছেলে আনিছুর রহমান। ইতিমধ্যেই দোকান ঘর নির্মাণ ও ছাউনি দেওয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। কিন্তু উপজেলা প্রশাসন সংলগ্ন ও একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের সামনে সরকারি জায়গা দখল করে এমন ভাবে স্থায়ী দোকান ঘর নির্মাণ কাজে বাধা না দিয়ে প্রশাসনের নিরব ভ’মিকায় স্থানীয়দের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। এই স্থাপনা নির্মাণ করায় উপজেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের সৌন্দর্যের যেমন হানি ঘটিয়েছে তেমনি ভাবে বড় কোন যানবাহন অধিদপ্তরে প্রবেশের সময় বাধার সৃষ্টি করবে এই দোকান ঘরের পিলারগুলো এমনটিই অবিযোগ স্থানীয়দের।

এ বিষয়ে দোকান নির্মাণকারী আনিছুর রহমান বলেন, আমার জায়গায় দোকান নির্মাণ করার সময় কিছু জায়গা কম হওয়ার কারণে সওজের জায়গার মধ্যে দোকানের কিছু অংশ চলে গেছে। মানুষ সরকারের কত জায়গা অবৈধ ভাবে দখর করে ভোগ করছে আর আমি এই সামান্য জায়গা জুড়ে না হয় দোকান ঘর নির্মাণ করেছি এতে করে তেমন কোন ক্ষতি হবে না। আর বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে আমি জানিয়েছি।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা: আমিনুর রহমান বলেন আনিছুর আমাকে কোন কিছু না জানিয়েই দোকান ঘর নির্মাণ করছে। তবে অধিদপ্তরের কোন জায়গা সে দখল করেনি কিন্তু সওজের কিছু জায়গা তার দোকান ঘরের মধ্যে প্রবেশ করেছে।

নওগাঁ সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী হামিদুল হক বলেন যদি দোকান ঘর সওজের জায়গার মধ্যে চলে আসে তাহলে পরিদর্শন সাপেক্ষে সেই দোকান ঘরের অতিরিক্ত অংশ ভেঙ্গে দিয়ে সওজের জায়গা উদ্ধার করা হবে। #