উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ   নড়াইলের কালনা ঘাটে ট্রলার থেকে পড়ে যাওয়া পুলিশ সদস্য ও তার শিশু সন্তান নিখোঁজের ঘটনায় অবশেষে রোববার সকাল ৯ টার সময় কালনা ঘাটের ১ কিলোমিটার দক্ষিনে মহিশাপাড়া এলাকায়’ পুলিশসদস্য মুসার মরদেহ ভেসে উঠলে এলাকাবাসী লোহাগড়া থানা পুলিশকে খবর দেন।এরপর খবর পেয়ে কাশিয়ানী থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছায়ে মৃত মুসার মরদেহ উদ্ধার করেন। তার সন্তান আনাচ এখনো নিখোঁজ রয়েছে। লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন এ পর্যন্ত পুলিশ সদস্য মুসার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, কিন্তু তার সন্তান আনাচ এখনো নিখোঁজ রয়েছে। মুসার লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

গত ২৮ আগষ্ট শুক্রবার মধুমতী নদীতে সপরিবারে নৌকা ভ্রমন করতে গিয়ে কালনাঘাট এলাকায় ট্রলার থেকে পড়ে  নদীর স্রোতে ভেসে যায় পুলিশ সদস্য মুসা ও তার শিশু পুত্র আনাচ। তিনি লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের চাচই গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আজাদ মোল্লার ছেলে।উল্লেখ্য, পুলিশ সদস্য আবু মুসা (রেজোয়ান) ঢাকা পুলিশ হেডকোয়ার্টার্রসে কর্মরত ছিলেন। নিহত মুসার পরিবার সূত্রে জানা যায় আসরের নামাজ পরে জানাজা সম্পন্ন করে লাশ দাফন করা হবে তার গ্রামের বাড়িতে। নিহত মুসা ও তার ছেলের এই মৃত্যুতে তার পরিবারসহ লোহাগড়া তে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।