ডেস্ক নিউজ: সুযোগ পেলেই বন্ধুদের নিয়ে ভ্রমণে বেরিয়ে পড়ার নেশা ছিল তার। আর বিভিন্ন লোকেশনে সেলফি তোলাও ছিল তার সেই নেশার অন্যতম উপকরণ।কিন্তু এই নেশাই তার প্রাণ কেড়ে নিল।মঙ্গলবার পাহাড়ে ট্র্যাকিং করতে গিয়ে সেলফি তোলার সময় ২৫০ ফুট উঁচু থেকে পড়ে যান ভারতের এক ক্রিকেটার। মুহূর্তেই প্রাণ হারান তিনি।ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, সেলফি তুলতে গিয়ে মারা যাওয়া ওই ভারতীয় ক্রিকেটারের নাম শিখর গাওলি। তার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। মহারাষ্ট্র দলের হয়ে রঞ্জি ট্রফিতে দুটি ম্যাচ খেলেছেন শিখর। মৃত্যুবরণ করার আগে মহারাষ্ট্র রঞ্জি দলের ফিটনেস ট্রেইনারের দায়িত্ব পালন করতেন তিনি।

লগাতপুরি পুলিশ স্টেশনের ইন্সপেক্টর অশোক রত্নপারখি গাওলির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।ইন্সপেক্টর অশোক বলেন, ‘শিখরের সঙ্গে থাকা বন্ধুরা আমাদের জানিয়েছে, সেলফি তুলতে গিয়ে নিজের ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে এবং নিচে পড়ে গিয়ে মারা যান। ময়নাতদন্তের পর তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

এদিকে গাওয়ালির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি রিয়াজ বাগওয়ান।তিনি বলেন, ‘সপ্তাহ দুয়েক আগে শিখরের বাবার মৃত্যু হয়। পরিবারটি কঠিন সময়ের মধ্যে ছিল। এরইমধ্যে শিখরকে হারাল তারা। শিখর আমাদের দলের অভিজ্ঞ ও খুব কার্যকরী স্টাফ ছিল। আমরা শিগগিরই শিখরের পরিবারকে সমবেদনা জানাতে তার বাড়িতে যাব।’

শিখরের ঘনিষ্ঠ ছিলেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটসম্যান কেদার যাদভ। শিখরের এমন চলে যাওয়াকে মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে যাদভের।

তিনি বলেন, ‘খুবই কর্মঠ ছিলেন শিখর। সবাই সাহায্য করতেন। তার মতো ট্রেইনারের তুলনা হয় না। সবসময় হাসিমুখে আমাদের উন্নতি চাইতেন। মহারাষ্ট্র খেলোয়াড়রা এবং ব্যক্তিগতভাবে আমিও তাকে অনেক মিস করব।’