নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান আবু সাঈদ সবুজ (৩২)কে আটক করেছে পুলিশ। সে একই উপজেলার পূর্ব বোতলাগাড়ীর ওয়াবদা নতুন হাটের মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে। শনিবার সন্ধায় সৈয়দপুর থানা পুলিশ জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ কল পেয়ে তাকে আটক ও স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে রাতে মেয়েটির বাবা তোবার আলী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।মামলা সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের উত্তর সোনাখুলী গ্রামের তোবার আলীর মেয়ে প্রাইভেট যাওয়া আসার পথে সবুজ তাকে উত্যক্ত ও ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে আসছিল। এ ভয়ে তার বাবা স্কুল ছাত্রীকে উপজেলার ঢেলাপীর গ্রামের পুলপাড়াস্থ বড় বোনের বাড়িতে রেখে আসে। বড় বোন ইপিজেডে শ্রমিকের কাজে ও অটোচালক দুলাভাই বাহিরে যাওয়ার সুযোগে ঘটনার দিন বিকেলে সবুজ কৌশলে ওই বাড়িতে যায়। এ সময় স্কুল ছাত্রীকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। বড় বোন বাসায় ফিরে তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে চিৎকার করলে গ্রামের লোকজন সবুজকে আটক করে। পরে জরুরী সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান জানান, ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। আটক যুবককে নীলফামারী জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।