প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টি থেকে নির্বাচিত হওয়া ভারমন্ট অঙ্গরাজ্যের গভর্নর ফিল স্কট এবারের নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনকে ভোট দিয়েছেন। খবর নিউইয়র্ক টাইমস

তাছাড়া ট্রাম্পকে ভোটদান থেকে বিরত থেকেছেন ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের গভর্নর চার্লি বেকার।

নিউইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, ভারমন্টের গভর্নর স্কট ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে ভোট দিয়েছেন। ট্রাম্পকে এই ভোট না দেয়ার বিষয়টি প্রকাশ্যেই জানিয়েছেন তারা।

ট্রাম্প ব্যর্থ মন্তব্য করে গভর্নর স্কট বলেন, দেশকে ঐক্যবদ্ধ করতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে চার বছর সময় দেয়া হয়েছে। তিনি ব্যর্থ হয়েছেন। তাছাড়া জীবনে এবারই প্রথম ডেমোক্রেটিক পার্টির কোনো প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

অন্যদিকে ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের গভর্নর চার্লি বেকার বলেন, আমি ব্যালট খালি রেখেছি।

এদিকে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ইলেকটোরাল ভোটে এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেন। তার সম্ভাব্য ইলেকটোরাল ভোটের সংখ্যা ২৬৪টি। বিপরীতে ট্রাম্পের সম্ভাব্য ভোট ২১৪টি।

নির্বাচন পর্যবেক্ষকেরা আশা করছেন, কয়েকটি ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্যের ফলাফল হোয়াইট হাউসের দৌড়ে গুরুত্বপূর্ণ হতে উঠতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে মোট ৫৩৮টি ইলেকটোরাল ভোটের মধ্যে অন্তত ২৭০টি নিশ্চিত করতে হবে। ভোটের দিনের আগেই ১০ কোটি ২ লাখ মানুষ আগাম ভোট দিয়েছেন। যা ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মোট ভোটারের ৭৩ শতাংশ।

ইলেকশন প্রজেক্টের জন্য তথ্য সংগ্রহকারী ইউনিভার্সিটি অব ফ্লোরিডার অধ্যাপক মাইকেল পি. ম্যাকডোনাল্ড জানিয়েছেন, এবারের নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি হতে পারে ৬৭ শতাংশ। এমনটি হলে এক শতাব্দীর বেশি সময়ের মধ্যে দেশটির সর্বোচ্চ ভোটার উপস্থিতির রেকর্ড হবে।