আলিফ হোসেন,তানোররাজশাহীর তানোর  বৃহত্তর বরেন্দ্র অঞ্চলের  শস্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত। তানোরে চলতি মৌসুমে রোপা-আমণ কাটা-মাড়াই শুরু হয়েছে। এবার বাজারে আলুর ভাল দাম থাকায় আলু চাষের জন্য কৃষকরা একটু আগেই আমণ কাটা-মাড়াই শুরু করেছেন। এদিকে  চলতি মৌসুমের  শেষের দিকে প্রতিকুল আবহাওয়ায় ( লাগাতার বৃস্টি) ও খরচ বেশী হলেও আমণের বাম্পার ফলন  এবং বাজারে খড় ও ধানের ভাল দাম থাকায়  খুশি কৃষক।  এবার আগাম জাতের আমন ধান বিঘা প্রতি ১২ থেকে ১৫ মণ পর্যন্ত ফলন পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া গো-খাদ্যের অভাব থাকায় গো-খাদ্য হিসেবে প্রতি হাজার খড়ের আঁটি বিক্রিয় হচ্ছে সাড়ে ৩ থেকে সাড়ে ৪ হাজার টাকায়। আর সদ্য কাটা কাচা ধান বাজারে বেচাকেনা চলছে মণপ্রতি ৯শ’ থেকে ১ হাজার টাকা। এদিকে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উদ্ভিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন,জানান, আবহাওয়া অনুকুল থাকায়  ধানে পোকার আক্রমণ অনেক কম।উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, তানোরে চলতি মৌসুমে প্রায় সাড়ে ২২ হাজার হেক্টর জমিতে আমণ চাষাবাদ হয়েছে। এর মধ্যে উপশী জাত ২১ হাজার ৪২৫ হেক্টর, সুগন্ধি জাত ৯৫০ হেক্টর  এবং হাইব্রিড জাত আছে ১২ হেক্টর জমিতে।৷ তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম বলেন, ধান কাটা শুরু হয়েছে আগামী সপ্তাহ’র মধ্যে পুরোদমে রোপা আমন ধান কাটা শুরু হবে। তবে, শ্রমিক সংকট হবে না জানিয়ে তিনি বলেন, ধান কাঁটার জন্য মেশিন প্রস্তুত রাখা হয়েছে, কৃষকরা চাইলেই অল্প সময় ও খরচে ধান কাটতে পারবেন।#