সিরাজগঞ্জে আরটিভির সাংবাদিক সুকান্ত সেনের মৃত্যু

আব্দুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টারঃ সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিত দৈনিক যুগের কথা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ও আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার সুকান্ত সেন (৪৫) করোনায় আক্রান্ত হয়ে শনিবার (৫ নভেম্বর) ভোর ৬ টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনার চিকিৎসা চলাকালে তাঁর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ ঘটে। এ কারণে তিনি সংজ্ঞাহীন ছিলেন। তার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২০ নভেম্বর সুকান্ত সেন শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে ২১ নভেম্বর করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা প্রদান করেন। পরে তার করোনা শনাক্ত হয়। তিনি বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। ২৩ নভেম্বর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঔদিন সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার আরো অবনতি হলে চিকিৎসকের পরামর্শে ওই রাতেই তাকে ঢাকায় নেওয়া হয়। এরপর ২৫ নভেম্বর তাকে ঢাকা মেডিকেলের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়। ২৯ নভেম্বর তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে রেফার্ড করা হয়। পরে ১ ডিসেম্বর দুপুরে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

সাংবাদিক সুকান্ত সেন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক ছিলেন। তিনি সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিত দৈনিক যুগের কথা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক, দৈনিক মানবকন্ঠের সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি এবং সিরাজগঞ্জ টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া তিনি সিরাজগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ সাধারণ সম্পাদক, রোটারি ক্লাবের সদস্য, উদীচী সিরাজগঞ্জ জেলা সংসদের নির্বাহী সদস্য এবং নাট্য নিকেতনের উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেছেন।তার এ মৃত্যুর খবর সিরাজগঞ্জ শহরে এসে পৌঁছালে সিরাজগঞ্জের সাংবাদিক মহল সহ সর্বস্তরের জনগণের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। তারা তার সিরাজগঞ্জ শহরের ২নং খলিফাপট্টির ভাড়া বাসভবনে ছুটে গিয়ে ভিড় জমান। এ সময় তারা পরলোকগত সাংবাদিক সুকান্ত সেনের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন ও তার বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করেন। মৃত্যুকালে তিনি মা,ভাই বোন, স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়ে সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার পৈত্তিক বাড়ি পাবনা শহরে হলেও তারা সপরিবারে সিরাজগঞ্জের চান্দাইকোণা ইউনিয়নের চান্দাইকোণা পাবনা বাজার এলাকায় বসবাস করতেন। শনিবার সিরাজগঞ্জ শহরের ঘুড়কা মহা শ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।