একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী রাজাকার, আলবদর ও আলশামসের সদস্যদের তালিকা প্রণয়নের সুযোগ রেখে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন-২০২০-এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্ব ভার্চ্যুয়াল এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার (৭ ডিসেম্বর) মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিদ্যমান আইনটি রহিত করে নতুন আইনের খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষে এটি জাতীয় সংসদে পাস হলে পরে এটি আইনে পরিণত হবে। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় যারা রাজাকার, আলবদর, আলশামস বাহিনীর সদস্য হিসেবে কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিল বা আধা সামরিক বাহিনীর সদস্য হিসেবে সশস্ত্র যুদ্ধে নিয়োজিত থেকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বা মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছে, তাদের তালিকা প্রণয়ন ও গেজেট প্রকাশের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ করবে মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল। বিদ্যমান আইনে এই বিধান নেই।

রাজাকারের তালিকা প্রণয়নে আজকের মন্ত্রিসভার বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগে আইনটি হোক। বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনা হয়নি। এ ছাড়া প্রস্তাবিত আইনে আগের মতো প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রণয়ন, অসত্য তথ্যের ভিত্তিতে তা করলে ব্যবস্থা নেয়াসহ বিভিন্ন বিধান রাখা হয়েছে।