সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃদক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার মুক্তাখাই গ্রামে দপ্তরী পেঠানো সেই যুবলীগ নেতা শাহনুর মিয়া(৩৫)কে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। আটক শাহানুর মিয়া মুক্তাখাই গ্রামের মনোয়ার আলীর ছেলে। বৃহ¯পতিবার ভোর রাতে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেনের নির্দেশনায় ও মামলার তদন্তকারী অফিসার মোহাম্মদ জায়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় জামালগঞ্জ থানাধীন লাল বাজার এলাকা থেকে শাহনুর মিয়াকে আটক করেন। পরে আসামীকে আদালতে নিয়ে আসা হলে  জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। মামলার তদন্তকারী অফিসার মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন জানান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার(ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন ও সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় আসামীকে তথ্য প্রযুক্তি ও সোর্সের মাধ্যমে মামলার পরপরই গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। মামলার তদন্ত অব্যাহত আছে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার(ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন ঘটনার পর থেকেই তাকে গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত ছিল। এবং আমরা দ্রুত আসামীকে গ্রেফতার করতে পেরেছি। উল্লেখিত ৬ ডিসেম্বর রবিবার সকাল ১১ টায় আটক শাহনুর মিয়া এক লক্ষ টাকা পাওনা আদায়ে একই গ্রামের বাসিন্দা এবং মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী তোফায়েল আহমদকে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করেন। এ ঘটনায় মুক্তখাই গ্রামের বাসিন্দা ও মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী তোফায়েল আহমদ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। তোফায়েল আহমদ মুক্তাখাই গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে।