এস.এ বিপ্লব,ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ নওগাঁর ‘রাণীনগর উপজেলা পরিষদ’ চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন নানান অভিযোগের মধ্যে দিয়ে ভোট গ্রহণ চলছে । আজ বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বেশিরভাগ কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি নেই ভোটার কেন্দ্র শূন্য বললেই চলে। সকাল ৯টা থেকে ভোট শুরু হওয়ার পর থেকে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এজেন্টদেরকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন বিএনপি ও স্বতন্ত্র।

রাণীনগর উপজেলা পরিষদের এই উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু, বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী মোসারব হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিজ উদ্দিন প্রামানিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে সকাল ৯টায় উপজেলার ত্রিমোহনী উচ্চ বিদ্যালয়ে নিজ কেন্দ্রে ভোট দেন আওয়ামীলীগের প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু এবং বিএনপির মনোনীত প্রার্থী মোশারব হোসেন সকালে গুয়াতা উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোট দেন। এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিজ উদ্দিন প্রামাণিক পাশাকৃষ্ণপুর উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোট দেন।

বিএনপির মনোনীত প্রার্থী মোসারব হোসেন অভিযোগ করে বলেন, এই ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে না। বিএনপির কোন এজেন্ট কেন্দ্রে গিলে তাদের মারপিট করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। তিনি

অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে । এ ব্যাপারে প্রশাসনকে একাধিকবার জানানো পরও প্রশাসন নীরব ভূমিকা পালন করছেন।

অন্যদিকে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মফিজ উদ্দিন প্রামাণিক বলেন, আমার এজেন্ট গুলোদের বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যহৃত রাখতে এবং এলাকার উন্নয়ন করতে এলাকাবাসী আমাকে ভোট দিবে বলে আশাবাদী। এ সরকার উন্নয়নের সরকার। রাস্তা ঘাট, স্কুল কলেজের উন্নয়ন এবং সুবিধা বি তদের মাঝে বিভিন্ন ধরনের ভাতা প্রদান করবো। তবে যে রায় হোক না কেন তা মেনে নিবো। জয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদ আমরা। সাধারণ মানুষ নৌকার পক্ষে ভোট দিবেন। জনগণ যে রায় দিবে সেই রায় মেনে নিবো।

৮টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এই রাণীনগর উপজেলা। মোট ভোটার ১ লক্ষ ৪৯ হাজার ৫৮৭ জন। পুরুষ ভোটার ৭৪ হাজার ৮৬৫ জন এবং মহিলা ভোটার ৭৪ হাজার ৭২২ জন। মোট ৫৬ টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনী এলাকায় পুলিশ, বিজিবি টহলের পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটে ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে রয়েছে মোবাইল টিম।

রাণীনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জায়দা খাতুন বলেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। এখন পর্যন্ত কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুলাই নওগাঁ-৬ (রাণীনগর-আত্রাই) আসনের এমপি ইসরাফিল আলম মারা যান। এরপর রাণীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলাল সংসদ উপ-নির্বাচনে ওই আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন। ফলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদ শুন্য হয়।