চুনারুঘাট(হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ পিঠা বাঙালির চিরাচরিত ঐতিহ্যের অন্যতম একটি বাহক। বাঙ্গালী জাতির পিঠা যেন এক সতোয়গাদা। রসুনাবিলাসীদের কাছে পিঠার আবেদন সাড়া জীবনের জন্য। তবে শীত এলেই পিঠাপুলি উম্মাদনা বহুগুন বেড়ে যায়। হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে শীত যতই বাড়ছে, ততই শীত বেড়ে যাচ্ছে ভ্রাম্যমাণ পিঠা বিক্রেতাদের বেছাকেনা। প্রতিদিন বিকাল থেকে রাত ১১ -১২পর্যন্ত শীতের পিঠার জন্য বিভিন্ন শেনীপেশার মানুষ ভিড় করাচ্ছেন পিঠার দোকানগুলিতে।

উপজেলা সদরসহ ছোট-ছোট বাজার গুলোতে  ভ্রাম্যমাণ পিঠা বিক্রেতারা শীতের পিঠা নিয়ে বসেছেন। এবার বিক্রেতারা ভাপাপিঠা, চিতলপিঠা, পুলীপিঠা, তেলপিঠা সহ বিভিন্ন রকমের পিঠার পসরা নিয়ে বসেছেন। বাসা, বাড়িতে মায়েরাও নববধূরা বিভিন্ন রকমের পিঠা, পায়েস তৈরিতে সময় পার করছেন। ভাপাপিঠাও চিতলপিঠা এবার বাজারে বেশী নজরকারে, পৌরসভার পাকুড়িয়া গ্রামের পিঠা বিক্রেতা বাসির মিয়া, বাসুক মিয়া ও বড়াইল গ্রামের ছায়েদ মিয়া জানান, আমরা প্রতি বছরই কার্তিক থেকে ফাগুন মাসের শেষ পর্যন্ত শীতের সময় পিঠা নিয়ে বসি। ৩ থেকে ৪ শত টাকা আয় করে ছেলে মেয়েদের নিয়ে ভালই চলছি।