গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের গঙ্গাচড়ায় বৈধ কোন কাগজপত্র ছাড়াই অবৈধভাবে জমি দখলে নিতে প্রকৃত জমির মালিকের বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে প্রতিপক্ষরা। বাঁধা দেওয়ায় বাড়ির লোকজনকে করিয়া ৩ জনকে আহত করে নগদ টাকা লুট করে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৩ জনকে আটক করে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুকবার সকালে গঙ্গাচড়া ইউনিয়নের ভুটকা গ্রামে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে।
অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গঙ্গাচড়া ইউনিয়নের ভুটকা গ্রামের ইউনুছ আলী পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে প্রাপ্ত হইয়া ১ একর ২৬ শতক জমি দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ভোগদখল ও চাষাবাদ আসছে। সম্প্রতি একই গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের পুত্র দুলাল মিয়া, লিজু মিয়া, নুর ইসলাম ও তার পিতা যাদু মিয়া, সহির উদ্দিনের পুত্র আব্দুর রাজ্জাক, সহিদুল ইসলাম, আবু বক্করের পুত্র ওমর ফারুক, নুরুল হকের পুত্র মোত্তালেব হোসেন, মৃত মহুবরের স্ত্রী আমেনা বেগম ও মৃত জাহাঙ্গীরের স্ত্রী জোলেখা বেগম উক্ত জমি বে-দখল করার পায়তারা ও হুমকি প্রদান করিয়া আসিতে থাকিলে নিরুপায় হয়ে ইউনুছ আলী রংপুরের বিজ্ঞ অতিরিক্ত ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে এ বছরের ৭ ডিসেম্বর ফৌঃ কাঃ আইনের ১৪৪ ধারা মতে মামলা করে। যার নং-মিছ,পি-৬৭০/২০। মামলটি বর্তমানে চলমান আছে। মামলা করায় প্রতিপক্ষরা ক্ষীপ্ত হয়ে সুযোগ বুঝে অজ্ঞাত আরো ১০/১২ জন ব্যাক্তিকে সাথে নিয়ে লাটিসহ বিভিন্ন দেশী অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঘটনার দিন শুক্রবার সকালে ইউনুছের জমি দখলে নিতে তার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে প্রায় ২০ হাজার ক্ষতি সাধন করে এবং ঘরে থাকা নগদ সাড়ে ৪ হাজার টাকা লুট করে। বাড়ির লোকজন বাঁধা প্রদান করিলে তাদেরকে এলোপাতারি মারপিট করে। তাদের মারপিটে ইউনুছের পুত্র ইয়াকুব, ছেলের স্ত্রী হাসি বেগম আহত হয়। আহত ২ জনকে গঙ্গাচড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুলাল, লিজু ও নুর ইসলাম (জাহানুর) কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় ইউনুছের পুত্র ইউসুফ আলী বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দাখিল করে। এদিকে থানায় অভিযোগ ও ৩ জনকে আটকের কারণে ঘটনায় জড়িত অপররা আরো ক্ষীপ্ত হয়ে অভিযোগের বাদী ইউসুফের মামা শাহিনুরকে পার্শ্ববর্তী মালিপের বাজারে একা পেয়ে বেধম মারপিট করে গুরুত্ব আহত করে। শাহিনুরকে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় তাদের কবল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায়। ইউসুফ জানান, কোন কাগজপত্র ছাড়াই তারা গায়ের জোরে অন্যায়ভাবে আমাদের হুমকিসহ জমি দখলের চেষ্টা করছে কিছুদিন থেকে। তাদের বিরুদ্ধে আমার পিতা মামলা করলে ক্ষীপ্ত হয়ে আমাদের বাড়ি ভাঙচুর করে ২০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন, নগদ সাড়ে ৪ হাজার টাকা লুটসহ ছোট ভাই ইয়াকুব ও ভাইয়ের স্ত্রীকে মারপিট করে গুরুত্বর আহত করে এবং ভাইয়ের স্ত্রীর শ্লীতাহানী ঘটায়। বিষয়টি পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ জনকে আটক করে। এছাড়া আমি থানায় অভিযোগ করায় ও পুলিশ ৩ জনকে আটক করায় ঘটনা জড়িত অপররা আরো ক্ষীপ্ত হয়ে আমার মামাকেও মারপিট করে রক্তাত্ব জখম করে আহত করে। এ ব্যাপারে গঙ্গাচড়া মডেল থানার এস আই আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, আটক ৩ জনকে ১৫১ ধারায় চালান করা হয়েছে এবং অভিযোগের তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।