বান্দরবান প্রতিনিধিঃ কক্সবাজারের রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইয়াবা পাচারকারী সন্দেহে জিজ্ঞাসা করায় চক্রের হামলায় ১০ গ্রামবাসী আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ২ জনকে চট্টগ্রাম মেডিক্যালে রেফার করা হয়েছে। তাদের অবস্থা গুরুতর। আহতরা হলো, ১ মিজানুর রহমান ( ২৩) পিতা মৃত জাকের আহাম্মদ, ২.বেলাল হোসেন ( ২৩)পিতা মৃত ছিদ্দিক আহাম্মদ ৩.,জহির উদ্দিন প্রকাশ কালু (২৬) পিতা মৃত রফিক আহমেদ,৪. জুহুরা বেগেম ( ৩৬) স্বামী আলী আকবর,৫. রিয়াজুল মান্নান(৩৬)আবছার কামাল উভয়ের পিতা মৃত আবুল হাছিম,৬. রিয়াজুল করিম,(৩২) পিতা ফরিদুল আলম, ৭. আবু তাহের, ৮.আবু নয়ন প্রমূখ। তারা সকলে ইউনিয়নের নতুন তিতার পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। সোমবার রাত সাড়ে ১০ টায় এ ঘটনা ঘটে। সোমবার রাত সাড়ে ১০ টায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত জহির উদ্দিন কালু জানান,তারা বনভোজন নিয়ে ব্যস্ত তখন। হঠাৎ বড়জামছড়ি গ্রমের চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও একই ইউনিয়নের বড় জামছড়ির চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও ইয়াবা চক্র বদু বাহিনী প্রধান বদিউল আলম বদু’ও জনৈক আমছরি মেম্বারের নেতৃত্বের একদল সন্ত্রাসী অতর্কিত হামলা চালালে এসব লোকজন আহত হয় । সোমবার রাত সাড়ে ১০ টায় এ ঘটনা ঘটে।

অপর আহত হেলাল,তহিদ ও বাবুল জানান ইউনিয়নের নতুন তিতার পাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেন মুন্নী ও একই ইউনিয়নের ইয়াবা ব্যবসায়ী বদিউল আলম বদু’র সাথে ইয়াবা প্রচারের বিষয় ঐ দিন নিয়ে মগরিবের নামাজের পর কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হাতাহাতি হয়। এর পর রাত ১০ টায় বদু বাহিনী হামলা চালায়। পরে পুলিশের আসার খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।